রাখাল বালক আর বাঘের গল্প: কতটুকু যৌক্তিক?

আমার ছেলেটির বয়স তখন তিন বছর ছুঁই ছুঁই করছে। একদিন বলল, “বাবা, একটি গল্প বল”। আমি তখন তাকে রাখাল বালক আর বাঘের গল্পটি বললাম –

এক ছিল মিথ্যাবাদি রাখাল বালক । সে গ্রামের কাছাকাছি এক যায়গায় গরু চরাতো। মজা দেখার জন্য একদিন রাখাল বালক বাঘ বাঘ করে চিৎকার করল। তার চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা ছুটে এল। এসে দেখল কিছুই হয়নি, রাখাল বালক মজা দেখে হাসছে। দ্বিতীয় দিনও রাখাল বালক অনুরূপ মজা দেখার জন্য বাঘ বাঘ করে চিৎকার করল। এবারও গ্রামবাসীরা তার সাহায্যে ছুটে এল। আবারও তারা দেখল কিছুই হয়নি, রাখাল বালক শুধু মজা দেখে হাসছে।
তৃতীয় দিন সত্যি সত্যিই বাঘ এল। রাখাল বালক এবার প্রাণের ভয়ে গ্রামবাসীদের সাহায্যের জন্য ‘বাঘ’ ‘বাঘ’ করে চিৎকার করতে থাকল। কিন্তু এবার আর তার সাহায্যের জন্য গ্রামবাসীরা ছুটে এল না। আর রাখাল বালক বাঘের খাদ্যে পরিণত হল।

আমার গল্প শেষ হওয়ার পর, আমার ছেলেটি প্রশ্ন করল, “বাবা, গ্রামবাসীরা রাখাল বালকের চিৎকার শুনলো, আর বাঘের গর্জন শুনলো না ?”
ওইটুকু শিশুর প্রশ্ন শুনে আমিতো হতবাক!
তাইতো গল্পটিতো অযৌক্তিক।

১,২৪৬ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “রাখাল বালক আর বাঘের গল্প: কতটুকু যৌক্তিক?”

  1. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    রমিত ভাই,
    এই গল্পটা মোটেই অযৌক্তিক নয়, কিন্তু ঈশপ সাহেব গল্পের কেন্দ্রীয় চরিত্রকে তার প্রাপ্য সম্মান জানান নি... :thumbdown:

    ঈশপের মতে গল্পের শিক্ষা হচ্ছে মিথ্যা বলা খুব খারাপ, এমনকি মজা করেও মিথ্যা বলা যাবে না। অথচ এই গল্পের অন্যতম শিক্ষা হওয়া উচিত ছিল-বাঘ খুব বুদ্ধিমান একটি প্রাণী। বুদ্ধি করে সে রাখাল বালককে তৃতীয়দিন আক্রমন করেছিল বলেই গ্রামবাসী ছেলেটাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে নি।

    ভাতিজার ডাউটের জবাবও কিন্তু এই সত্যের মধ্যে লুকিয়ে আছে। চতুর বাঘ সেদিন এমনকি কোন গর্জনও করে নি... 😀


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  2. তাইফুর (৯২-৯৮)

    আমি চিন্তা করতেছি ঈশপ সাহেবের পোলা কেন এই ডাউটটা দিতে পারল না ??
    গল্প লেখার এত বছর পর বাপকে অন্তত যৌক্তিকতার প্রশ্ন থেকে বাচাইতে পারত।

    (বিটিডব্লিউ : বাঘ সাধারণতঃ শিকারের দিকে সন্তর্পনেই আসে ...) (সম্পাদিত)


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন
  3. কানিজ ফাতিমা সুমাইয়া (অতিথি)
    ঈশপের মতে গল্পের শিক্ষা হচ্ছে মিথ্যা বলা খুব খারাপ, এমনকি মজা করেও মিথ্যা বলা যাবে না। অথচ এই গল্পের অন্যতম শিক্ষা হওয়া উচিত ছিল-বাঘ খুব বুদ্ধিমান একটি প্রাণী। বুদ্ধি করে সে রাখাল বালককে তৃতীয়দিন আক্রমন করেছিল বলেই গ্রামবাসী ছেলেটাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে নি।

    ভাতিজার ডাউটের জবাবও কিন্তু এই সত্যের মধ্যে লুকিয়ে আছে। চতুর বাঘ সেদিন এমনকি কোন গর্জনও করে নি

    =)) =)) =))
    :clap: :clap: :clap:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।