এবিসি জেনারেশন কনসার্ট – ফটোব্লগ

মনে পড়ে ছাড়পত্র অ্যালবামের কথা – এল আরবি আর মাইলসের কীবোর্ডওয়ালা আমি নেই-তুমি নেই গানের ভীড়ে এই অ্যালবাম মাথায় একেবারে ঢুকে গিয়েছিল। শুনলাম একে বলে আন্ডারগ্রাউন্ড মিউজিক। ভাল, আরও শুনলাম – আরসিসিতে কনসার্টে যেতে থাকলাম, ইয়ো গ্রুপ হল আর আমিও তারছেড়া হয়ে গেলাম। যেখানে পড়তাম সেখানে ক্লাসে ক্লাসে গিটারিস্ট ভোকাল আর ড্রামার থাকত, ১২টা ব্যান্ডের যেকোন আন্ডারগ্রাউন্ড কনসার্টে গেলে দেখতাম সব ব্যান্ডেই কেউ না কেউ আমার ক্লাসমেট।

যাই হোক, আমি তো ছিলাম লিসেনার্স গ্রুপ, সেসময়ের যারা নয়া মিউজিশিয়ান ছিল তাদের সবার কাছেই তখন আর্টসেল ব্ল্যাক ক্রিপটিক ফেইট একটা নতুন উঠতে থাকা আইকন। এখন আর আন্ডারগ্রাউন্ড শোতে যাওয়া হয় না, তবে নতুন আসা গান একটাও মিস করি না কারও। এ কারনেই যখন দেখলাম আর্টসেল ব্ল্যাক আর ক্রিপটিক ফেইট আবার একসাথে ৫ ঘন্টার শো করবে, টিকিট ১২০০ টাকা না ১২০০০ টাকা আর মিস করি নাই।

সেই আগের মত হেডব্যাং, স্ক্রিমিং ভয়েসে কোরাস, আর এবার অ্যাডিশনাল যুক্ত হয়েছে ছবি তোলা। সেটার কিছু ছবি নিয়েই এই ব্লগ।

(১) ক্রিপটিক ফেইট

(২) ব্ল্যাক

(৩) আর্টসেল

(৪) এবিসি একসাথে

কনসার্টের মাঝে এক পুরনো ফ্রেন্ডের সাথে দেখা হল, হাসতে হাসতে আমাকে বলল এখানে এসে নাকি নিজেকে অনেক বয়স্ক মনে হচ্ছে। হঠাত করেই গর্ব করে বললাম, এখানে যারা আছে তার ৮০%ও ছাড়পত্র অ্যালবাম, বা ক্রিপটিক ফেইটের এন্ডস আর ফরেভার অ্যালবাম শুনছে কি না সন্দেহ আছে।

::salute:: টু আন্ডারগ্রাউন্ড ইন্ডাস্ট্রি – আমি এখন আর ইংলিশ গান শুনি না।

১,৮২৩ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “এবিসি জেনারেশন কনসার্ট – ফটোব্লগ”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    ছবিগুলো দারুন হয়েছে :hatsoff:

    মনে আছে আশির্বাদের এলবামের এবিসির করা টাইটেল ট্রাকটা কিছুদিন আমার তিম সং হয়ে গিয়েছিল, রুমে ফুল ভলিউমে বাজতে থাকতো, এক পর্যায়ে আশেপাশের রুমের বাসিন্দাদের নানা রকম হুমকির মুখে ওই কাজ বন্ধ হয়, :))

    আমাদের ব্যান্ডগুলো(নতুন/পুরাতন) নিয়ে একটা পোস্ট দেন রাকেশ ভাই, সেখানে পুরোনো স্মৃতিগুলো নিয়ে একটু আড্ডাবাজি করা যাবে।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  2. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    এবিসি জেনারেশন রকস! ধন্যবাদ রাকেশ; কথা কম ছবি বেশি....... ব্লগটা ভালো হয়েছে। :thumbup:

    এবিসি রেডিও ছিল এবিসি জেনারেশনের সঙ্গে। তোমার ছবিতে সেটাও উঁকিঝুঁকি মারছে! 😀

    পরের দিনের হায়ার ম্যাথ প্রিটেস্ট, আমার পোলা পড়াশুনা ফালাইয়া ৭ ঘণ্টা কনসার্টে সময় কাটাইলো। তাও মাইন্যা নিলাম। বাসায় আইস্যা দিলো ঘুম............ ওর মায়ের সব ঝারি গেল আমার ওপর দিয়া ~x(


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।