বিশ্বকাপের কথা

অনেকগুলো খেলা হয়ে গেছে, আর হয়তো অল্প কিছু ম্যাচ বাকি আছে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের।

এখন পর্যন্ত যারা বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে, সবাইকে অনেক অনেক কনগ্রাচুলেশনস। ডেনমার্ক, জার্মানি, স্পেন, ইংল্যান্ড, সার্বিয়া, ইতালী, হল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, সাউথ কোরিয়া, নর্থ কোরিয়া, ঘানা, আইভরি কোস্ট, ইউএসএ, মেক্সিকো, ব্রাজিল, প্যারাগুয়ে, চিলি – এরা সবাই ফুটবলের চেনা মুখ।

নর্থ কোরিয়া একটা বড় সারপ্রাইজ সবার জন্য, এদের কে আমরা কিছুই চিনি না, কিন্তু বিশ্বকাপে বড় কোন সারপ্রাইজ দিবে এরা আমি নিশ্চিত। যোদ্ধা জাতি হিসেবে সাউথ কোরিয়া অথবা জাপানের চেয়ে এরা ভালো বলেই আমার ধারনা।

চিলিকে নিয়েও আমার অনেক আশা। মাতিয়াস ফার্নান্দেস, রডরিগো টেল্লো, মার্ক গঞ্জালেজ দের ফাটানোই উচিত।

দুঃখও আছে অনেক, পর্তুগাল/সুইডেন, চেক, টার্কি, বেলজিয়াম, ইউক্রেন/ক্রোয়েশিয়া, রোমানিয়া, নরওয়ে/স্কটল্যান্ড, ইরান, মরক্কো, আর্জেন্টিনা/ইকুয়েডর/উরুগুয়ে – এদের মধ্যে অনেকেই মিস করতে পারে। বেলজিয়াম, রোমানিয়া, নরওয়ে, স্কটল্যান্ড, মরক্কো, ইরান আর উরুগুয়ে হয়তো তাদের গোল্ডেন জামানাতে আর নাই, কিন্তু তারপরও এরা হচ্ছে বিশ্বকাপের অনেক চেনা মুখ, অনেক স্মৃতিও আছে। পর্তুগাল আর সুইডেন কাউকেই মিস করতে চাই না, ক্রোয়েশিয়া না থাকলে বিশ্বকাপ জমবে না আবার শেভচেঙ্কোকেও আর একটা বিশ্বকাপে দেখতে চাই, আর আর্জেন্টিনা না থাকলে মারামারি করব কাদের সাথে!

সবশেষে, সবার কাছে দোয়া চাচ্ছি আমাদের কোচ মার্সেলো লিপ্পির মাথায় যেন একটু বুদ্ধি হয়। 😡

২,৭০৭ বার দেখা হয়েছে

৪০ টি মন্তব্য : “বিশ্বকাপের কথা”

    • রাকেশ (৯৪-০০)

      পরের ম্যাচ উরুগুয়ের সাথে, যাদেরও বিশ্বকাপে যাওয়ার চান্স আছে। এর মানে ডু আর ডাই ম্যাচ যেটা জিততেই হবে। কিন্তু সমস্যা হল ম্যাচটা হবে উরুগুয়ের মাটিতে, জিতার জন্য যারা রেফারিকে ঘুষ দেয়া কিংবা আর্জেন্টাইন প্লেয়ারদের বাজে অভ্যর্থনা দেয়া থেকে শুরু করে মাঠে মারামারি পর্যন্ত করতে পারে। খুব ভালো না খেললে আসলে উরুগুয়ের মাটিতে অদের হারানো অনেক কঠিন।

      অঙ্কের হিসাবে আর্জেন্টিনা আর উরুগুয়ে দুজনেরই বাদ পরার সুযোগ আছে, কিন্ত্যু সুযোগটা মনে হয় ইকুয়েডর নিতে পারবে না।

      জবাব দিন
      • কামরুলতপু (৯৬-০২)

        ভাইয়া মনে হয় ঠিক বললেন না। আর্জেন্টিনার যে জিততেই হবে তেমন না ব্যাপারটা। ড্র করলে আর্জেন্টিনা এমনিতেই যাবে। আর ইকুয়েডর এর খেলা চিলির সাথে ওটা হারারই কথা ইকুয়েডর এর। তাহলে উরুগুয়ের সাথে আর্জেন্টিনা হারলেও ৫ম দল হিসেবে প্লে অফ খেলবে সে খেলাও মনে হয় হন্ডুরাস এর সাথে তাতে জিতারই কথা।

        জবাব দিন
        • এহসান (৮৯-৯৫)

          আর্জেন্টিনা ড্র করলেই কোয়ালিফাই করবে এটা বলা যায়। শুধু মাত্র ইকুয়েডর এর একটা কাগুজে সম্ভাবনা আছে সরাসরি কোয়ালিফাই করার। সে ক্ষেত্রে চিলির মাটিতে চিলিকে ৫ গোলের ব্যাবধানে হারাতে হবে।

          উরুগুয়ে নিজের মাটিতে আর্জেন্টিনাকে হারালেই সরাসরি বিশ্বকাপে যাবে। আর শুধু ফুটবলীয় কারণেই উরুগুয়ের পক্ষে এই ম্যাচ জেতা সম্ভব।

          উরুগুয়ের মাটিতে, জিতার জন্য যারা রেফারিকে ঘুষ দেয়া কিংবা আর্জেন্টাইন প্লেয়ারদের বাজে অভ্যর্থনা দেয়া থেকে শুরু করে মাঠে মারামারি পর্যন্ত করতে পারে।

          একদম মানি না এই ধরণের কথা। এই কথা গুলো পাড় আর্জেন্টাইন সমর্থক আমাদের রাজণীতি সংস্কতির ধারক কারো কথা মনে হলো। নির্বাচনে জেতার আত্মবিশ্বাস কম থাকলেই আমরা নির্বাচন কমিশন কিংবা লেভেল প্লেয়িং গ্রাউন্ড মার্কা কুযুক্তিতে মেতে উঠি।

          আমার মতে উরুগুয়ের শক্তি তাদের ডিফেন্স। আর তাদের ক্যাপ্টেন লুগানো দারূন খেলোয়াড়। ফেনারবাচেতে খেলে বলে অনেকেই চিনেনা বা খুব কম খেলা দেখেছে। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় লুগানো একজন সেন্ট্রাল ডিফেন্সের আন্ডার রেটেড সুপার খেলোয়াড়। এছারাও আছে বার্সেলোনার (এখন লোনে খেলছে জুভেন্টাসে) ক্যাসেরাস, পোর্তোর জর্জ ফুসাইল, ও বেনফিকার ম্যাক্সি পেরেইরা। আর আক্রমনে আর্জেন্টিনার দুর্দশার(গোল খরা) কথা চিন্তা করলে এই ডিফেন্স অনেক শক্তিশালী।

          আর আর্জ়েন্টাইন ডিফেন্সের হেইঞ্জের পেস দিয়াগো ফোরলানদের তুলোনায় নিতান্তই কম বলে রিয়াল হেইঞ্জের মত বুড়াদের ছেড়ে দিয়েছে। ফোরলান ছাড়াও আয়াক্সের তরুণ তুর্কি লুই সুয়ারেজ ফাটাফাটি প্লেয়ার। গতম্যাচেও ইকুয়েডরের সাথে গোল করেছে এই সুয়ারেজ।

          আসলে নিজের মাঠে খেলার পাশাপাশি উরুগুয়ের বড় এডভান্টেজ আরজেন্টাইন ম্যানেজার। ম্যানেজারীয় দক্ষতায় পুরাই ভুয়া এই তথাকথিত ফুটবল ঈশ্বর।

          তাও আমি চাই আর্জেন্টিনা কোনো মতে ড্র করুক। কারণ

          আর্জেন্টিনা না থাকলে মারামারি করব কাদের সাথে!

          আর ঘানা কিংবা আইভরী কোস্টের সম্ভাবনা নিয়ে কিছু লিখলে না যে ভাই। এবার নাকি আফ্রিকান চ্যাম্পিওন দেখার একটা ভালো সম্ভাবনা আছে। আর এই দল্গুলোই তো আর্জেন্টাইন সমর্থকদের ভরসা। হয়তো ইতালিয়ান সমর্থকদেরও!!! 😛

          জবাব দিন
  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    পর্তুগাল, ক্রোয়েশিয়া, রাশিয়া, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স এদেরকে বিশ্বকাপে দেখতে চাই এদের প্রানবন্ত ফুটবল দেখার জন্য। আফ্রিকার প্রায় সবগুলো দলই আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলে, ওদেরকেও ভাল লাগে। আর এশিয়ার দলগুলোকে পছন্দ হয় না ঠিক একই কারনে।

    তবে সবচেয়ে খুশি হয়েছি গ্রীস বাদ পড়াতে, ২০০৪ এ গ্রীসের ইউরো জয় মনে হয় ফুটবলের জন্য অন্যতম দুঃখজনক ঘটনা। ইটালি হলো ওদের থেকে মাত্র এক ধাপ উপরে, এই ধরনের নেগেটিভ মনোভাব সম্পন্ন দলগুলোর সাফল্য পাওয়া সার্বিক ভাবে ফুটবলের জন্য খারাপ।

    তবে ইউরো ২০০৮ এ স্পেন, রাশিয়ার আক্রমনাত্মক ফুটবলের সাফল্যের পরে তার পজেটিভ প্রভাব ইউরোপের ক্লাব ফুটবলে পড়েছে ( অবশ্যই ইটালি বাদে ) । আশা করি এবারের বিশ্বকাপেও গতিশীল ও আক্রমনাত্মক ফুটবলের জয় হবে।আর সে ক্ষেত্রে হল্যান্ড হতে পারে সেরা অপশন... ( আমি কোন দলকে সমর্থন করছি তা মনে হয় আর আলাদা ভাবে বলতে হবে না ;)) )


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  2. তানভীর (৯৪-০০)

    আমার মন বলছে এবার আর্জেন্টিনা কোয়ালিফাই তো করবেই, বিশ্বকাপেও অনেকদূর যাবে- বলে রাখা ভালো আমি ব্রাজিলের সাপোর্টার। 🙂
    পেরুর সাথে আর্জেন্টিনার খেলা দেখে আমি বেশ হতাশ, নিজের মাটিতে ওদের আরও ভালো খেলা উচিত ছিল। ল্যাটিন আমেরিকার দলগুলোর খেলার ভক্ত আমি বরাবরই।
    এবার বিশ্বকাপে স্পেনকে নিয়েও আমি বেশ আশাবাদী। ওদের দলে বেশ কিছু প্লেয়ার (যাভি, ফাব্রেগাস, ইনিয়েস্তা) আকর্ষণীয় ফুটবল। দল হিসেবে ওরা কেমন করে সেটা দেখার অপেক্ষায় আছি।

    জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

      পেরুর সঙ্গে কিন্তু আর্জেন্টিনা খারাপ খেলে নাই। লাস্ট মোমেন্টে পেরু একটা গোল আজাইরা গোল দিছে, সেইটা আর্জেন্টিনাও লাস্ট মোমেন্টে অলৌকিক ভাবে শোধ করছে। এর আগ পর্যন্ত আর্জেন্টিনা আগাইয়া ছিল এক গোলে।

      আর্জেন্টিনার মূল সমস্যা ওদের কোচ। এখন যদি ম্যারাডোনা কোচের পদ থেকে রিজাইন করে আমি শিউর আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের ফাইনাল পর্যন্ত যাবে। কারন গত ২০ বছরের ইতিহাসে আর্জেন্টিনায় কখনো এতো ভালো টিম করার মতো প্লেয়ার ছিল না। কিন্তু তাদের বাদ দিয়া গুরু যাদের টিমে নিতেছে আর যেভাবে খেলাইতেছে, তাতে এখন যেতে বিশ্বকাপের মূলপর্বে যেতে পারবে কিনা এই নিয়াই আমি সন্দিহান।

      তারপরেও বলা যায় না, অনেক ভুয়া টিম নিয়া অনেকেই (পড়ুন ব্রাজিল) চামে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হইছে, সুতরাং কি হবে তা বলা যায় না।


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
      • তানভীর (৯৪-০০)

        দোস্ত, আর্জেন্টিনা এক গোলে আগাইয়া থাকলেও ওদের খেলা আমার ভালো লাগে নাই। আর্জেন্টিনার যেসব খেলোয়াড় আছে তাদের কাছ থেকে অনেক দৃষ্টিনন্দন খেলা আশা করেছিলাম। পুরা টিম খেলতে চায় মেসির উপর ভর করে। মেসিকে আটকায়ে দিলে ওদের খেলা অর্ধেক খারাপ হয়ে যায়! এরকম স্ট্র্যাটেজি নিয়া খেললে নিকট ভবিষ্যতে আশা নাই আর্জেন্টিনার।

        ভুয়া টিমের (পড়ুন ব্রাজিল) বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ভালো খেলতে হয়। ভুয়া খেললে ব্রাজিল ঐবার চ্যাম্পিয়ন হতে পারত না। আর কিছু তথাকথিত ভালো দল (পড়ুন আর্জেন্টিনা) ভুয়া খেলে বলেই অনেক বছর ধরে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে না!

        জবাব দিন
  3. হাসান (১৯৯৬-২০০২)

    আমি মনে করি আর্জেন্টিনার অন্যতম প্রধান সমস্যা হল একজন ফিনিশারের অভাব। মেসি, তেভেজ, আগুয়েরো এরা কেউই কিন্তু বাতিস্ততা বা ক্রেসপোর মত ফিনিশার না, এরা বলপ্লেয়ার। তাই আমি মনে করি ক্রুজ বা মিলিতো কে বাদ দিয়ে বিশ্বকাপ দলে ক্রেসপোকে নেয়া উচিত।

    আর বলাই বাহুল্য মেসি বার্সেলোনার হয়ে নিয়মিত গোল করলেও আর্জেন্টিনার হয়ে এই রকম পারফরম্যান্স আমি দেখি না।

    হিগুয়াইন পেরুর বিপক্ষে খুব একটা ভালো না খেললেও আমি ওকে নিয়ে আশাবাদী। আইমার এর সাথে মেসির একটা ভাল বোঝাপড়া হয়েছে। তবে রিকুয়েলমে কে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না রাখার মত ভুল আশা করি ম্যারাডোনা করবে না।

    গোলরক্ষক সবাই নিতান্ত সাধারণ মানের, আমার কাছে উসতারি আর রোমেরো একই কথা।

    আমার মতে আর্জেন্টিনার বাকি দলটা হওয়া উচিত এইরকম

    ইনসুয়া, ওয়াল্টার স্যামুয়েল, ডেমিসিলিস/কোলোচিনি, জানেত্তি

    মাসকেরানো

    রিকুয়েলমে, ম্ম্যাক্সি রড্রিগুয়েজ, মেসি

    হিগুয়াইন, ক্রেসপো

    জবাব দিন
  4. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    অবশেশে সবাইকে (পড়ুন ব্রাজিল সমর্থকদের) হতাশ করে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করল।
    তবে খেলা ভুয়া হইছে। ভেরন রে কেন নামায় বুঝিনা ওর বদলা আইমার রে খেলাইতে পারত আর রড্রিগুয়েজ কেন নাই এই উত্তর কে জানে?

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।