সম্রাট বাবর ও তার সাঙ্গপাঙ্গ……

ক্লাস ৭ থেকে আমাদের ইতিহাস ক্লাস নিতেন জহির স্যার। জহির স্যার সম্রাট বাবরের বিশাল ফ্যান। তিনি মুঘল আমলকে পড়াতেই সবচে বেশি পছন্দ করতেন। তাই আমরা তার নাম দিয়েছিলাম সম্রাট বাবর।

স্যার ক্লাস এ আসলে ফর্ম সাবধান না বলে আমরা মোঘল আমলের মত সুর করে বলতাম (ফর্ম লিডার বলতো)……মুঘল-ই-আজম……মুঘল-ই- শাহেনশা………… সম্রাট বাবর……এইসব…

স্যারের একমাত্র পানিশমেন্ট সিল ব্যান্ড পজিশন করায়ে পশ্চাৎদেশে কাঠের স্কেল দিয়ে মাইর। আর এই পানিশমেন্ট খাওয়া আমরা খুব এঞ্জয় করতাম…… ছুটিতে গেলে সবার কাজ ছিল কাঠের স্কেল নিয়ে আসা। কেউ কিছু করলেই স্যার ডেকে সামনে ব্যান্ড পজিশন করায়ে পশ্চাৎদেশে স্কেল দিয়ে মাইর শুরু, যদিও মাইরগুলো ব্যাথা থেকে আনন্দের ছিল বেশি। এইজন্য আমরা যারা একটু বেশি ভদ্র টাইপ ছিলাম, তারা সবসময় একজন আর একজনকে স্যার এর কাছে ধরায়ে দিতাম… আর এই করতে করতে স্যারের কাছে মাইর খাওয়ার শতক পুরন করেছিলাম আমি………এ এক অনবদ্ধ্য ফীলিংস……

একবার স্যার ক্লাস এ আসছে দেখে আমরা কয়েকজন কাগজ দিয়ে হেলমেট, তলোয়ার বানাইলাম স্যারকে গার্ড অফ অনার দিব বলে……। আমরা ৩জন (আমি,ইশা,হাসান) পজিশন নিলাম……ফর্ম লিডার সেই সুর করে ফর্ম সাবধান করলো ……আমরা তরবারি তুলে স্যারকে অভিবাদন দিলাম…আর স্যার ফর্মে ঢুকেই আমাদের ৩জনকে ব্যান্ড পজিশন করায়ে পশ্চাৎদেশে মাইর শুরু।

স্যারের পরীক্ষার খাতাতে আমরা সব সময় বাবরের কাহিনি লিখেছি……স্যার পেজ গুনে নাম্বার দিত, তাই আমরা এক গল্প বার বার করে লিখতাম……এক পরীক্ষায় আমাদের একজন পুরা একটা বাংলা সিনেমার গল্প লিখে ইতিহাস পার্ট এ সবচেয়ে বেশি নাম্বার পাইল।

জানি না স্যার আজ কোথায়  আছে। সর্বশেষ জানতাম স্যার SCCতে …। তাও কয়েক বছর আগে……

আজ পুরানো দিনের কথাগুলো যেন একটু বেশি মনে পরল………

৭ টি মন্তব্য : “সম্রাট বাবর ও তার সাঙ্গপাঙ্গ……”

  1. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    ব্লগে স্বাগতম।
    এখন ১০ টা :frontroll: লাগাও গুণে গুণে।

    আর বানান গুলা আবার চেক করো।
    যেমনঃ অনবদ্ধ


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  2. মামুনুর রশীদ খান(২০০১—২০০৭)

    স্বাগতম নাসিম ভাই। জহির স্যারের কথা মনে করায়া তো নস্টালজিক কইরা দিলেন! স্যারের আরেকটা পানিশমেন্ট ছিল টেবিলের নিচে মাথা দেওয়ায়ে পাছায় কাঠের স্কেল দিয়া মাইর!! কত খাইছি!!!
    আমরা একপৃষ্ঠায় তিন লাইনের বেশি লিখতাম না।


    ক্যাডেট রশীদ ২৪তম,প ক ক

    জবাব দিন
  3. সামিউল(২০০৪-১০)

    নাসিম ভাই স্বাগতম।

    জহির স্যারকে আমরা পাইছিলাম ক্লাস ১০এ। উনি মানুষ হিসেবে অনেক সহজ-সরল এবং জ্ঞানী ছিলেন। ক্লাসে এসে উনি ইতিহাস বেশি পড়াতেন না। তার লক্ষ্য ছিল আমাদের ইংরেজি ভোকাবুলারী সমৃদ্ধ করা। অনেক নতুন নতুন শব্দ শিখেছি তার কাছে। যদিও উনার ক্লাসে খুব ফাজলামি-শয়তানি করতাম, তবু এটা স্বীকার করতে লজ্জা নেই যে, উনার কারণেই যে আমাদের অনেকেরই ইংরেজি জ্ঞান অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।

    স্যারকে ::salute::


    ... কে হায় হৃদয় খুঁড়ে বেদনা জাগাতে ভালবাসে!

    জবাব দিন
    • নাসিম (২০০০-০৬)

      হ্যাঁ, স্যার আসলেই একজন ভালো মানুষ ছিলেন। আমাদেরকেও তিনি অনেক ইংরেজি শিখিয়েছেন।আমরাও স্যার র পরীক্ষার খাতায় ব্যবহারও করেছি।...............আর ফাজলামি-শয়তানি তো ছিলই ......

      চেষ্টা করবো লিখতে......


      যেমন আছি, তেমনই ভালো।

      জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : সামিউল(২০০৪-১০)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।