জিতে গেলো জানুয়ারি

কাউন্ট ডাউন চলতেছে পিসিতে আর মাত্র নয় মিনিটের মধ্যে এই ব্লগটা লিখা শেষ করতে হবে। কিন্তু স্লো নেট কানকশনের কারণে ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে আপলোড করতে পারবো কি-না জানি না। আমরা এই ব্লটা শুরু করেছিলাম জানুয়ারি মাসে। শুরু করতে না করতেই ব্যাপক জনপপ্রিয়তা পায় “স্মৃতিময় ক্যাডেট কলেজ”। প্রথমে অবশ্য এখানে শুরু হয় নাই। মেকার একটা উইকি সাইট আছে। সেখানে উইকি ফরম্যাটের মধ্যে অনেক কষ্টে ঠিকঠাক করে ব্লগটা শুরু করি আমরা। চিন্তাটা আসছিলো চায়ের দোকানে, চায়ের কাপে ভিন্নরকম ঝড়।

সেখানে কিছুতেই হচ্ছিলো না। তাছাড়া সাইটটা শুধুই মির্জাপুরিয়ানদের। তাই অন্যত্র সরিয়ে নেয়া ছিল অবশ্যম্ভাবী। এমন সময় আসলো ওয়ার্ডপ্রেস। জিহাদ ওয়ার্ডপ্রেসে তৈরী করলো নতুন এই ব্লগটা। গেঞ্জির ডিজাইন হিসেবে যে ছবিটি এঁকেছিলো সামিয়া তাতে একটি লাইন যোগ করে হেডার ইমেজের জায়গায় পাঠালো। প্রথম দর্শনেই ভালো লেগে গেলো সবার। চমৎকার এগোতে লাগলো ক্যাডেট কলেজ ব্লগ। জানুয়ারিতে মোট ২৬টি পোস্ট হলো।

আর ফেব্রুয়ারি। অনেক অনেক নতুন সদস্যে ভরে গেল ব্লগখানা। নিত্যদিন আপডেচ হচ্ছে এখন। দেখতেই ভালো লাগে।

আর মাত্র ৫ মিনিট এর মধ্যে শেষ করতে চাই। কিন্তু শেষ করলেও লাভ নাই জানুয়ারিকে হারাতে পারলাম না আমরা। তবে হতাশ হবার কিছু নাই। জানুয়ারির জয়ের পেছনে কারচুপি আছে। মেকার সেই সাইটে লিখে রাখা অনেকগুলো ব্লগ এখানে একদিনে স্থানান্তরিত হওয়ায় ফুলে ফেঁপে উঠে জানুয়ারি। এই তার জয়ের গোপন কাহিনী।

তাই অনায়াসে বলা যায় মার্চ মাসে জানুয়ারির দ্বিগুণ লেখা আসবে স্মৃতিময় ক্যাডেট কলেজে। আরও বেশিও আসতে পারে। দেখা যাক কি হয়।

আর এটা লিপ ইয়ার ছিল, সবার মনে আছে নিশ্চয়ই। ২০০৮ এর ২৯শে ফেব্রুয়ারিতে ব্লগিং ছিল বেশ সরগরম। ছয়টি নতুন ব্লগ উঠেছে এই দিনে। মন্তব্য হয়েঅঅ অনেক অনেক।

সময় শেষ হয়ে গেল, সরি এখানেই শেষ করলাম।

৯৪২ বার দেখা হয়েছে

৬ টি মন্তব্য : “জিতে গেলো জানুয়ারি”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।