কোভিডের দিনগুলি

কোভিডের দিনগুলি
============

এখানে থাকার কথা ছিলো একটি ফড়িং-এর
কথা ছিল পানকৌড়ির একটি স্থিরচিত্রের-
যা আমরা দেখেছিলাম কালনীর কুয়াশায়।

এখানে থাকার কথা ছিলো নিদেনপক্ষে একটি শিশুর
কথা ছিলো এক যুগলের ভুল সময়ে মিলনের-
বাণিজ্যমেলায় যাদের সাক্ষাত হয়েছিলো।

এখানে থাকার কথা ছিলো একটি হলুদ বিকালের
কথা ছিলো সাহেব পার্কে একটি আত্মহত্যার-
যেটার কারণ ছিলো একটি শূন্য নীল খাম!

এখানে থাকার কথা ছিলো শস্যনিকানো মাঠ
কথা ছিলো পূর্ণিমায় হবে আবারো জোনাকি-নৃত্য
যা তুমি দেখেছিলে পৌষ সংক্রান্তির রাতে।

এখানে থাকার কথা ছিলো দার্জিলিং চায়ের মদির ধোঁয়া
কথা ছিলো বন্ধুদের একটি নিষ্পাপ সম্মিলন-
অথচ সমুদ্র-কষ্ট নিয়ে দেখবো মাতালের আস্ফালন।

এখানে থাকার কথা ছিলো গমরঙা হাতে বর্ণিল চুড়ি
কথা ছিলো একেকটি সন্ধ্যা হবে তুমিময়-
যা আমরা হারিয়েছি কুড়ি বছর আগে!

কথা ছিলো করোটিতে আবারো হবে স্বপ্নের আবাস
কথা ছিলো কোরা কাগজে হবে কবিতার চাষবাস;
কথা ছিলো পরাণের গহীনে হবে মীনের বসতবাটি
কথা ছিলো আঁচলজুড়ে পাতবে কেউ মৌন শীতলপাটি!

সবকিছু থাকার কথা ছিলো এই চত্বরে
সবকিছু ছিলো জানি অভিশপ্ত ব-দ্বীপে,
এখন মুখোশময় জীবন হারায় অদ্ভুত আঁধারে
প্রেম, কাম বিলীন হয় আজ নির্লিপ্ত অনিমিখে!

০৪/০৯/২০২০
মানিকদী, ঢাকা

২,০৫৩ বার দেখা হয়েছে

৩ টি মন্তব্য : “কোভিডের দিনগুলি”

  1. সুস্বাগতম ব্লগের প্রথম লেখায়। কবিতাটি খুব উচ্চমার্গের লাগছে। অঙ্কে নতুন শব্দ - এই যেমন কালনীর কুয়াশা। কবিতাটি পড়ার পর এক ধরণের উদাস বোধ হচ্ছে।এখানে থাকার কথা ছিলো গমরঙা হাতে বর্ণিল চুড়ি
    কথা ছিলো একেকটি সন্ধ্যা হবে তুমিময়-
    যা আমরা হারিয়েছি কুড়ি বছর আগে! -ভালো লাগা কিছু পঙন্তি।

    জবাব দিন
  2. খায়রুল আহসান (৬৭-৭৩)

    অনিন্দ্যসুন্দর কবিতা! গোটা কবিতাই ভাল লেগেছে, তবে বিশেষ ভাল লাগার স্তবকটিঃ

    "কথা ছিলো করোটিতে আবারো হবে স্বপ্নের আবাস
    কথা ছিলো কোরা কাগজে হবে কবিতার চাষবাস;
    কথা ছিলো পরাণের গহীনে হবে মীনের বসতবাটি
    কথা ছিলো আঁচলজুড়ে পাতবে কেউ মৌন শীতলপাটি!"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।