বিরহ

বিজন রাত চাদঁ ঝরা ছাদ তুমি আমি পাশাপাশি
কত কথা কব ভেবে মরে যাই,
বীনা তারে গান আকুলি পরান তুমি আমি কাছাকাছি
কত সুর বেধে স্বর সাধি হায় ।
স্থবির আকাশ মৌন বাতাস বাধা তোমার হাতে হাত
জড়াব মন অনুখন মরমে মরি,
শ্রান্ত ধরা সুধা ভরা নির্মল তুমি আমি নিশ্বাসে নিশ্বাস
কত খেলা খেলিতে কি পারি।

এহেন সময় তুমি কাছে নাই নীল জোছনা চুয়ে পড়ে
নদীর অশ্রুজল শ্রোতে ভাসে
অপলক চোখে শুধু ধুধু চর শুকনা বালুর ধুলি উড়ে
খা খা মরু ঢাকা সাদা কাশে।
নিসফল গুনি কিঙ্কন শুনি উঠে চমকি পরান বার বার
দেখি ছায়া তব বাহুপাশে।

৪৮৮ বার দেখা হয়েছে

৩ টি মন্তব্য : “বিরহ”

  1. লুৎফুল (৭৮-৮৪)

    বিজন রাত চাদঁ ঝরা ছাদ তুমি আমি পাশাপাশি
    কত কথা কব ভেবে মরে যাই,
    - আহা ! কি সখ্য সান্নিধ্য !

    এহেন সময় তুমি কাছে নাই নীল জোছনা চুয়ে পড়ে
    নদীর অশ্রুজল শ্রোতে ভাসে
    - আহা ! কি নির্মম বিরহ !

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।