বেকার ভালোবাসার গল্প, ১৪ ই ফেব্রুয়ারী , ২০১১।

সখী ভালোবেসে সুখ নাহি পাই
তাই প্রতি রাতে ঝালমুড়ি খাই।
শুনেছ! ঝালের দামটাও গিয়েছে বেড়ে!
যাওয়ার সময় বলেছিল প্রিয়তমা হাত নেড়ে
“মিসকল দিওনা আর, ফোনে কল-ব্লক অপশন আছে”।

দুঃসময় কি আর গুনে গুনে পার করা যায়?
ঘড়ির ব্যাটারিটাও নষ্ট হয়ে গেছে সখী
বারোটা বাজতে আর কত বাকি আছে????
মাথার ভেতরে অজস্র স্বপ্নের নড়াচড়া তাই
আগুনকে আজকাল খুব বেশী ভয় পাই।

তবু
আজ সকাল সকাল রৌদ্রস্নান করে বড় অফিসের
হামবড়া এক কর্তার সামনে গিয়ে ঢোল পেটাতে হবে।

সখী,বেলা বোস তো চলে গেছে, চাকরীটা পেয়ে কী হবে!
নিজের সব অর্জিত অর্জন নিয়ে আমার-ই সন্দেহ ……
তবু তোমায় কাছে পেয়ে বলি, তোমার ফিলোসফিতে গণ্ডগোল আছে।
আমার সবকিছু দিয়ে দিতে পারি এই দিনে, যদি আমায় কিনে দিতে পারো
এক প্যাকেট নিদ্রানাশক। সারারাত জাগব সখী আজ
জোছনাটাকে আজ জোর করে টেনে নেব কাছে।।

৫০৩ বার দেখা হয়েছে

৩ টি মন্তব্য : “বেকার ভালোবাসার গল্প, ১৪ ই ফেব্রুয়ারী , ২০১১।”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।