দূরত্ব-

দূরত্ব
———

দুয়েকটা মাছরাঙার গলা টিপে দিতে মন চায়।

জানালা খুলে নির্নিমেষ চেয়ে থাকি।
চারটে বনভূমি পেরিয়ে- কোন এক বোকা মানবীর
অশ্রু ঝুলে থাকে মাকড়সার জালে;
আমি তাকে মধু ভেবে খেয়ে নিই।

আমি ছুয়ে দিতে গেলে-
সরে সরে যায় শুধু মেঘ।
আহা রঙধনু, তোমাকে মাখিয়ে মুখে
সুখ নিতে চাই, তাই, আকাশের সাথে
বাড়ে আমার শত্রুতা।

স্মৃতি জুড়ে প্রজাপতি, ক্লিশে হয়ে আসে দিনে দিনে-
পরীদের ডানা কেটে নিয়ে,
মনে হয় উড়ে যাই আমি পখীরাজ-
দিয়ে আসি সেই বোকা মানবীরে।

পৃথিবীর যাবতীয় সৌন্দর্য্যের নিকুচি করি আজ।
আমাদের বেদনা যেন দূরত্বের বর্গানুপাতিক।।

বেদনা সহেনা প্রাণে, আমি তারে সমাহিত চাই।

ভীষণ আক্রোশ মনে, তুষে রেগে ওঠে ক্রোধানল-
পাখীদেরো ডানা ভেঙ্গে দেবো!
গুণে গুণে মটকাই দোয়েলের ঘাড়-
ফাঁক পেলে, দুয়েকটা শালিকেরও।

———–
২২/০৭/০৭

১,৪৭৪ বার দেখা হয়েছে

২৩ টি মন্তব্য : “দূরত্ব-”

  1. তারেক (৯৪ - ০০)

    কবিতাটা প্রায় বছর দুয়েক আগে লেখা। ছোট্ট একটা ইতিহাস আছে। বউয়ের ভিসা ঝুলিয়ে রেখেছিলো অজি এম্বেসী। নানান হাংকি পাংকি করে, এই কাগজ চায়, ওই কাগজ চায়। সব মিলিয়ে তিতি-বিরক্ত ছিলাম। একদিন রাগের মাথায় এই কবিতা চলে আসলো।
    মজার ব্যাপার হলো, যেদিন লিখেছি, সেদিন দুপুরেই শুনি বউয়ের ভিসা হয়ে গেছে। পরে একটু আফসোস হলো, কেন যে আরও আগে লিখলাম না এটা!


    www.tareqnurulhasan.com
    www.boidweep.com

    জবাব দিন
  2. তানভীর (৯৪-০০)

    দোস্ত, অসাধারণ হয়েছে কবিতাটা। :boss: :boss:
    ঐ সময়ে নিশ্চয়ই খুব মন খারাপ ছিল তোর! 🙁
    এই কবিতার আমার প্রিয় লাইনগুলো তুলে দিলাম।

    পরীদের ডানা কেটে নিয়ে,
    মনে হয় উড়ে যাই আমি পখীরাজ-
    দিয়ে আসি সেই বোকা মানবীরে।

    তিথি কেমন আছে রে? আর তুই পুরোপুরি সুস্থ্য হইছিস্‌?

    জবাব দিন
  3. আন্দালিব (৯৬-০২)

    নিজের পাখি উড়ে আপনার কাছে যাচ্ছে না বলে আপনি সব পাখি ধরে ধরে মারতেছেন! সবাই দেখি এই নৃশংসতাকে আবার বাহবা দিতেছে!!! 😮 😮 😮

    কলিকাল! ঘোর কলিকাল!!

    নাহ্‌, আপনার কবিতাটা আমার খুব ভাল লেগেছে। 🙂

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।