“নগর সভ্যতা”

“নগর সভ্যতা”

 

হে নগর –

সভ্যতার নিশান দিগ্বিদিক উড়িয়ে

আজ তুমি তিলোত্তমা,

লাল-নীল এই শহরে তুমি আজ

অপ্সরা- তব দেহে মেখে নিয়ে মৃদু লাজ

সুরম্য দালান আর অট্টালিকা-প্রাসাদ মাঝে

করিছ মানবের জয়গান।

 

হায়, তবে ভুলিছ বসি

ঐ প্রাসাদ-পরে ঢাকিয়াছ যারে

ছায়াময় সে কোণে

জড়াজড়ি করে বাস শত শত

মানুষ-রূপী দ্বিপদের –

নাই আলো, নাই পানি,

নাই নীড় তাহাদের,

এতটুকু হাওয়ায় টা্লমাটাল –

তবু নিরন্তর জীবনের তরে করে বাঁচিবার সংগ্রাম!

 

এই বেলা গভীর নিশীথে অট্টালিকা,

আনত শিরে -লজ্জায় অধোবদনে

সভ্যতাকে করে ভর্ৎসনা,

দিয়ে যায় শাপ, আর্দ্র স্বরে কহে,

নগর – তুমি মানবের তরে এক অভিশাপ ।

 

২৭০ বার দেখা হয়েছে

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।