কথা ছিলো

কথা ছিল তোমায় নিয়ে আকাশ দেখবো,

তোমার হৃদয়ের মতো সুবিশাল,

আকাশ; শরতের আকাশ।

পেজা তুলোর মতো সাদা মেঘগুলো দেখে,

তোমারও উড়তে ইচ্ছে হবে,

আমার হাত ধরে বলবে-চলোনা উড়ে যাই ওই দূর দিগন্তে;

 

কথা ছিল তোমায় নিয়ে উঠবো ওই পর্বতের চূড়ায়,

যেখানে শব্দহীন-কোলাহল আন্দোলিত করবে মন-প্রান!

ঠিক আকাশের কাছাকাছি-

সেখানকার নিষ্ঠুর নিস্তব্ধতা তোমার ভাঙতে ইচ্ছে হবে,

কারনে অকারনে চিৎকার করে উঠবে,

মৃত্যুর মতো ভয়ংকর সৌন্দর্য দেখে-

ফিসফিস করে বলবে- “চলো মরে যাই।”

 

কথা ছিল দুজনে হাত ধরে সমুদ্র দেখবো

যে সমুদ্রের গভীরতা,

লজ্জা পেয়ে ফিরে যায় তোমার চোখের গভীরতা মেপে,

সেই সুনীল সমুদ্র-দেখে তোমার ছুতে যেতে ইচ্ছে হবে।

শত সহস্র ঢেউ এসে ভিজিয়ে দেবে তোমায়,

জলে ভিজে লেপটে যাবে তোমার শাড়ি-

লজ্জায় রাঙা হয়ে উঠবে তুমি;

বলবে- “ছাই! থাকবো না এই ছন্নছাড়া সমুদ্রে।”

****************

 

অনেকদিন হয়ে গেলসমুদ্রের কাছে যাই না,

ঢেউয়ের আনাগোনা আমার ভাল লাগে না,

আকাশ দেখতে ইচ্ছে করে না-

পর্বতশৃঙ্গের নিস্তব্ধতা,অসহ্য ঠেকে-

এখন শুধু বৃষ্টিতে ভিজি,

সেই ভাল!

অম্বরবৃষ্টির সাথে ধুয়ে যায় আমার অশ্রু-বৃষ্টি।

রিমঝিম শব্দে ঢেকে যায় আমার মর্ম-চিৎকার।

এতো স্বার্থপর কেন তুমি?

একা একাই চলে গেলে আকাশ দেখতে?

কথা না ছিলো আমাদের?

 

দুজনে একসাথে আকাশ দেখবো…

৪১২ বার দেখা হয়েছে

৪ টি মন্তব্য : “কথা ছিলো”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।