ফালতু কিছু প্যাঁচাল

আবার আসিলাম ফিরে এই ক্যাডেট কলেজ ব্লগ এর তিরে। গতবার যে‍ পরিমান :frontroll: জমছিল সেটা শেষ করতে এত দিন সময় লেগে গেল। আল্লাহই জানেন এইবার কতগুলা দেয়া লাগবে। ব্যাপার না, সিনিয়র ভাইদের আদেশ ২টা না হয় বেশি দিব।

ফৌজে ১ মাস ছুটি কাটানোর সৌভাগ্য কয়জনের হইছে আমি জানি না, কিন্তু ছুটি কাটানোর আমি যা অর্জন করেছি সেটা হচেছ খানদানি একটা ভুড়ি। যাইহোক এই ব্যাচেলর জীবনে অন্তত একটা পার্টনার পাওয়া গেছে। আমি যখন রাস্তায় চলি, সে চলে আমারও আগে। ঠিক যেন এক দেহ দুটি প্রাণ।

কি করে যে একটা মাস কেটে গেল টেরই পেলাম না। বন্ধুদের সাথে এদিক সেদিক ঘোরাঘুরি করা, আড্ডা দেয়া, ফুটপাথে বসে চা খেতখেতে মেয়ে দেখা। ভালই কাটছিল সময়। কিন্তু সময় কাটতে কাটতে কখন যে কেটেই গেল বোঝার মত সময়ই পেলাম না। ছুটি শেষ করেই চলে গেলাম খোলাহাটি প্রমোশন পরীক্ষা দিতে। যায়গাটা আসলেই খুব খোলামেলা। এতই খোলামেলা যে বাইরে চা খেতে গিয়েছিলাম বেশি না মাত্র ৭ কিলোমিটার, তাও ভ্যানে চড়ে।

ছুটি শেষ, পরীক্ষাও শেষ। আমার প্যাঁচাল ও তাই শেষ। আমার প্রাণপ্রিয় সিনিয়র ভাইদের প্রতি একটা রিকোয়েস্ট। এইবার দয়া করে :frontroll: :frontroll: কয়েকটা কমায় দিয়েন, নইলে দেখা যাবে পরবর্তী পোস্ট দিতে আরও দেরি হয়ে গেছে।

৭৮০ বার দেখা হয়েছে

২৫ টি মন্তব্য : “ফালতু কিছু প্যাঁচাল”

  1. মেহেদী হাসান (১৯৯৬-২০০২)

    খোলাহাটিতে আমি আমার প্রথম ৪ বছর কেটেছে। চারিদিকে ধু ধু ফাঁকা প্রান্তরের মাঝে সবুজ এই সেনানিবাসটা আমার খুব প্রিয়। আমার চাকরীর অন্যতম সুন্দর সময় কেটেছে ওখানে। এখন তো অনেক কিছু আছে। আমি যখন ২০০৫ এর জানুয়ারিতে খোলাহাটিতে প্রথম যাই তখন মোবাইল নেটওইয়ার্কও ছিল না। অফিসারদের দেখতাম রাত ১২ টার পর মেসে চারতলার উপর সিড়ি ঘরের ছাদের উপরে উঠে নেটওয়ার্ক খুঁজছে। চরম ছিল সেই দিনগুলো।

    জবাব দিন
  2. ইমরান (১৯৯৯-২০০৫)

    একখান কথা কমু। এই পোস্টটা আমার প্রথম পোস্ট দুইটার কোনটার থেকেই বড় হয়নাই। তারপরও কেউ ওরে কিছু কইল না....জাতির কাছে আজ বিচার চাই।


    রঞ্জনা আমি আর আসবো না...

    জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    একে তো প্যাচাল, তার উপর ফালতু... খুব খারাপ, আসিফ, খুব খারাপ...

    এই সব বেগারতি বাদ দিয়ে সলিড জিনিষ ছাড়ো...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  4. লেঃ আসিফ
    আপনার মাথার অবশিষ্ট চুল কামিয়ে ফেলার জন্য বারংবার নির্দেশ প্রদান করা সত্ত্বেও এখনো আপনার মাথায় প্রচুর চুল দেখা যাচ্ছে।এ ব্যাপারে উপযুক্ত কারণ প্রদর্শন পূর্বক ০৫১৪০০ এপ্রিল ২০১০ ঘটিকার ভেতর নিম্ন সাক্ষরকারীর নিকট জমা দেয়ার জন্য বলা হল।

    মোঃআসিফুল আলম
    লেঃ
    পক্ষে ৫৭ বি এম এ লং কোর্স

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।