ক্যাডেট কলেজ ও বৃষ্টি

আজকে নিয়ে দু’দিন হয়ে গেল আকাশ মেঘে ঢাকা আর বৃষ্টির। এই কালো হয়ে থাকা আকাশ দেখে কলেজের কথা মনে হচ্ছে বেশ। আজকে কলেজে থাকলে হয়তো শেডের নিচে শুধু fall in হয়ে পার পেয়ে যাওয়া যেত। তারপর breakfast-র আগ পর্যন্ত আবার চাদরমুড়ি দিয়ে ঘুম। কিন্তু বিকালে আবার ম্যারাথন প্রেপটা থাকতো বটে। ডর্মের লাস্ট প্লেসটা কেউ বুকিং দিয়ে ফেলছিস্‌ নাকি boys?? 😛 উফফফ্‌…দুপুরে লাঞ্চে আজকে নিশ্চই খিচুড়ি আর গরুর মাংস (ইলিশ মাছ কখনোই আমার খুব একটা পছন্দ ছিল না)! আজকে কিন্তু খিচুড়ি শর্ট ফেলতে হবে boys, মনে রাখিস্‌! :awesome:

এইরকম দিনগুলাতে আমি মোটামুটি ঘুমায়ই কাটায় দিতাম। কিন্তু কলেজের যে সুন্দর চেহারাটা হতো তা মিস্‌ করি নি। পুরা মাঠ পানিতে ডুবে এমন অবস্থা হতো যে দেখে মনে হতো বিশাল একটা ঝিল কলেজের মাঝখানে! ঐদিন যদি ফ্রি-ডে হতো পোলাপাইন হাউসের সামনের জাম্বুরা গাছটার একটা জাম্বুরাও বাকি রাখ্‌তো না ছিড়ে ফুটবল বানায় খেলতে। আর হাউস গার্ডেনটা হয়ে যেত কাবাডি মাঠ। খেলে-টেলে, কাঁদা মেখে তারপর শুরু হত ড্রাইরুমে যেয়ে পানি-যুদ্ধ! :gulli:

পোষ্টটা লেখা শেষ করতে দেখি আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে। যাহোক, কিছু ছবি শেয়ার করি এখন। কলেজের বৃষ্টির সময়ের সৌন্দর্য দেখেই আমার প্রথম ছবি তোলার শখের শুরু। আমার শখের ফটোগ্রাফির প্রথম ছবি ছিল এটা –
ঐদিন এইগুলোও তুলেছিলাম –

আরো কিছু ছবি দিলাম আমাদের পোলাপাইনের বৃষ্টির দিনের মাস্তির। দেখতে থাকুন। :salute:





২,২০০ বার দেখা হয়েছে

১৭ টি মন্তব্য : “ক্যাডেট কলেজ ও বৃষ্টি”

  1. তানভীর (২০০১-২০০৭)

    জুবায়ের, সেই বদর হাউজ, সেই কলেজ মাঠ, আর জাম্বুরা................................. সত্যই নস্টালজিক করে দিলে ভাই।
    আবার যদি পেতাম সেই দিনগুলো ..................।।
    ভাল লেখা।


    তানভীর আহমেদ

    জবাব দিন
  2. রকিব (০১-০৭)

    প্রথম ব্লগ নাকী এইটা; তাইলে তো রেজিমেন্টেশন করানো লাগে।
    স্টার্ট ফ্রন্টরোল আপ টু প্রিন্সিপালের বাসা!!!!!!!!!! :grr: :grr:


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  3. ড. রমিত আজাদ (৮২-৮৮)

    খুব বেশী মাত্রায় নস্টালজিক!!! আমি ঝিনাদহ ক্যাডেট কলেজ দেখিনি। তবে সিলেট বৃষ্টির দেশ। প্রচুর বৃষ্টি হতো সিলেটে তথা আমাদের কলেজে। কলেজ ক্যাম্পাস আর পাহাড়ের গায়ে, ঝমঝম বৃষ্টি সে যে কি অপূর্ব দৃশ্য। বারবার মন চায় সেই ক্যাডেট বেলায় ফিরে যেতে।
    তোমার ছবিগুলো খুব সুন্দর হয়েছে!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।