প্রসঙ্গঃ সিসিবি রেডবুক পরিমার্জনা

সিসিবি’র রেডবুকটির সাথে আশা করি সদস্যদের সবারই পরিচয় আছে। সময়ের স্রোতে আমরা রেডবুকে কিছু নতুন নির্দেশনা যোগ করতে যাচ্ছি। সদস্যদের মতামত এবং অবগতির জন্য বিষয়গুলো এই পোস্টে সন্নিবেশিত হলো। পোস্টটি পড়ার পর নতুন কোন নীতি সংযোজন বা কোন নীতি সংশোধনের ব্যাপারে যে কেউ পরামর্শ দিতে পারেন। পরামর্শ যুক্তিযুক্ত এবং সময়োপযোগী হলে সেটি রেড বুকে যোগ করে দেয়া হবে।

১. বর্তমান ক্যাডেটদের জন্য সিসিবিতে লেখালেখি কিংবা অংশগ্রহণের দরজাটি বিভিন্ন সঙ্গত কারণে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। অর্থাৎ আমরা আর আপাততঃ বর্তমানে ক্যাডেট কলেজে অধ্যয়নরতদের সিসিবিতে লেখালেখির সুযোগটি দিচ্ছিনা। ক্যাডেট কলেজ কিছু বৈশিষ্ট্যপূর্ণ শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে পরিচালিত হয়। সেইদিকে নজর দিয়েই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

২. প্রাক্তন ক্যাডেটদের পরিবারের সদস্যদের সিসিবি’র সদস্যপদের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। এছাড়া অন্যদের অতিথি একাউন্টে লেখার সুযোগটি আর থাকছেনা। অর্থাৎ সিসিবিতে লিখতে হলে অবশ্যই কোন প্রাক্তন ক্যাডেটের পরিবারের সদস্য হতে হবে। তবে অন্যান্যদের মন্তব্যে অংশগ্রহণের পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে।

৩. একটি ব্যাপারে আমরা সবার একটু মনোযোগ আকর্ষন করতে চাইছি। সিসিবি শুরু থেকেই লেখালেখির জায়গার আবেশে একটি পরিবারের মতন অবস্থান তৈরিতে সচেষ্ট থেকেছে এর সদস্যদের মধ্যে। ক্যাডেট কলেজের সিনিয়রিটি জুনিয়রিটির অভুতপূর্ব স্পিরিট বজায় রাখার ক্ষেত্রে সিসিবি তার অবস্থান স্পষ্ট করতে চায়। বিভিন্ন তর্ক-বিতর্কে অতীতে অনেক সময়ই অনেক সদস্য এই অনন্য স্পিরিটটির ব্যত্যয় ঘটিয়েছেন। এরপরেও সবার মিলিত অংশগ্রহণে আমরা আমাদের পরিবারটিকে ক্যাডেটিয় সংস্কৃতির উজ্জ্বল ধারাবাহিকতায় ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছি বলেই প্রতীয়মান হয়। যারা নতুন সদস্য হচ্ছেন তাদের প্রতি তাই একটি অনুরোধ থাকবে যেকোন যুক্তি-তর্কের মতবিরোধেও এই সংস্কৃতি ধরে রাখার জন্য। সাম্প্রতিক সময়ে কিছু সদস্যের বিভিন্ন মন্তব্য এবং অবস্থানের বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। ভবিষ্যতে এইধরণের বালখিল্যতার ক্ষেত্রে সিসিবি কর্তৃপক্ষ কঠোর অবস্থান নেয়ার ব্যপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা সিসিবিকে একটি জমাটবদ্ধ আন্তরিক পরিবার হিসেবে দেখতে চাই। দলছুটদের ব্যাপারে তাই এরপর থেকে সবসময়েই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেবল ব্লগে নয়, ব্লগের বাইরেও সিসিবি সংশ্লিষ্ট কোন ধরণের অপপ্রচার কিংবা অসদাচারণ নিরুৎসাহিত করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

৪. মন্তব্য করার বিষয়ে সবাইকেই একটু সচেতন হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। হালকা চালের মন্তব্য করার ক্ষেত্রে কোন বাধ্যবাধকতা না থাকলেও পোস্ট লেখকের প্রতি তার লেখার প্রতি সম্মান দেখিয়ে আরেকটু সতর্কতার সাথে মন্তব্য করতে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।

৫. নতুন যারা রেজিস্ট্রেশন করবেন তাদের বর্তমান ফর্মেটে নাম এবং কলেজে অবস্থানের সময়কাল উল্লেখ করে রেজিস্ট্রেশন করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। কোন ধরণের ছদ্মনামকে আমরা নিরুৎসাহিত করছি। আমরা আশা করি এখানে যারা লিখবেন তারা নিজ নিজ নামেই লিখবেন। অন্যান্য কমিউনিটি ব্লগের সাথে সবদিক থেকেই স্বতন্ত্র্য থাকার প্রয়াস হিসেবেও ধরা যেতে পারে এটিকে।

৬. সিসিবি’তে কমেন্ট এর সাথে সবার আই পি’র ট্র্যাক রেকর্ডও যোগ হয় যা কেবল এডমিন প্যানেল দেখতে পারেন। অতীতে অনেককেই নিজের আইডি লুকিয়ে বেনামে অস্থিতিশীল এবং বাজে মন্তব্য করতে দেখা গেছে। ভবিষ্যতে এরকম কাউকে করতে দেখা গেলে তার পরিচয় সবাইকে জানিয়ে পর্যাপ্ত প্রমাণ সহকারে বহিষ্কার করা হবে।

৭. যেকোন মতের আদর্শের ধরণের লেখার জন্য আমরা সিসিবি’কে উপযুক্ত প্ল্যাটফর্ম হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। বিতর্ক আসবেই। আমরা চাইব তা যেন কখনোই মাত্রা না ছাড়ায়। এধরণের মাত্রালঙ্ঘিত অবস্থায় মডারেটরদের পরামর্শ অনুযায়ী এডজুট্যান্ট যেকোন ধরণের পদক্ষেপ নিতে পারবেন যেকোন সদস্যের বিরুদ্ধে।

৮. আমরা লেখার গুণগতমানের দিকে এবার একটু নজর দিতে চাই। কন্ট্রিবিঊটর বা একদম নতুন সদস্যের লেখা প্রকাশিত না হলে সেই লেখার ভিতরে মডারেটর প্রদত্ত নোট দেখে নিতে বলা হচ্ছে। বানানের ব্যাপারে যত্নশীল হবার অন্য আহবান জানানো যাচ্ছে সকল সদস্যের প্রতি। অনেক সুন্দর লেখাও বানান ভুলের কারণে গ্রহণযোগ্যতা হারায়। মূলত ক্যাডেটদের ব্লগ হওয়া সত্ত্বেও সিসিবি এখন ক্যাডেট পরিবার এবং পরিচিত পরিমণ্ডলেও যথেষ্ট সমাদৃত এবং পঠিত। এমতাবস্থায়, সিসিবির সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে লেখার বিষয়বস্তুর ব্যাপারেও আরেকটু সতর্ক হবার আহবান জানানো হচ্ছে।

৯. সিসিবি একটি বাংলা ব্লগ। আমরা আমাদের দৈনন্দিন কথা বার্তায় যেভাবে ইংরেজির ব্যবহার করি, সেইভাবে পোস্টে এবং মন্তব্যে ইংরেজি বাংলা মিশিয়ে কিংবা ইংরেজির প্রাধান্য বা ইংরেজি অক্ষরের ব্যবহার চরম ভাবে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।

১০. ব্লগের প্রাণ মন্তব্যে। মন্তব্যে ইমোটিকন ব্যবহারে একটু মিতব্যয়ী হবার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। অতিরিক্ত ইমোটিকন সমৃদ্ধ মন্তব্য স্প্যাম চিহ্নিত হবার সম্ভাবনা থাকে।

সবাইকে আলোচনায় সাবলীল অংশগ্রহণ করার অনুরোধ জানানো হচ্ছে। ধন্যবাদ।

৬,২৬৭ বার দেখা হয়েছে

১২৩ টি মন্তব্য : “প্রসঙ্গঃ সিসিবি রেডবুক পরিমার্জনা”

  1. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    সবগুলাতেই সহমত (এডজুট্যান্টের সাথে কারো দ্বিমত করার ক্ষমতা আছে/ছিল নাকি কখনো?)


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  2. মইনুল (১৯৯২-১৯৯৮)
    বর্তমান ক্যাডেটদের জন্য সিসিবিতে লেখালেখি কিংবা অংশগ্রহণের দরজাটি বিভিন্ন সঙ্গত কারণে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। অর্থাৎ আমরা আর আপাততঃ বর্তমানে ক্যাডেট কলেজে অধ্যয়নরতদের সিসিবিতে লেখালেখির সুযোগটি দিচ্ছিনা। ক্যাডেট কলেজ কিছু বৈশিষ্ট্যপূর্ণ শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে পরিচালিত হয়। সেইদিকে নজর দিয়েই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

    ওদের ইউজার তৈরী করা বা মন্তব্যের অপশনও কি তুলে নেয়া হবে? অধ্যয়নরত ক্যাডেটদের কয়েক জনের বেশ কিছু লেখা খুব ভালো লেগেছিলো। 🙁

    জবাব দিন
  3. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    সিনিয়রিটি বা সিনিয়র-জুনিয়র রিলেশনকে সিসিবির ভিত্তি হিসেবে না দেখে সহায়ক শক্তি হিসেবে দেখা দরকার। আমার ধারনা তাহলে অনেক অনাকাংখিত পরিস্থিতি এড়ানো যাবে। আর এটা করতে হলে মডারেটর প্যানেলে কারা কারা আছেন তা যেমন সবার জানা দরকার তেমনি তাদের ক্ষমতার একটা মাপকাঠি তৈরী করে ফেলা দরকার।

    পাশাপাশি আমরা অর্গানোগ্র্যাম তৈরী করে রাখতে পারি। মডারেটরদের উপরে একজন এডজুট্যান্ট এবং প্রিন্সিপাল রাখা যেতে পারে, যিনি অনেকটা বিচারিক কাজ করবেন। এটা অন্যান্য ব্লগ থেকে আমাদের আলাদা করে রাখবে।

    প্রিন্সিপাল হিসেবে আমরা সানা ভাইকে মেনে নিয়েছি। আমি বলতে চাচ্ছি এটার প্রাতিস্টানিক দিকটির কথা। এটাকে বা এরকম কিছুকে সিসিবি ব্লগ-আইনের আওতাধীন করে ফেলা। প্রিন্সিপালকে অবশ্যই সমস্ত মতবাদের মধ্যে সমতা আনার ব্যাপারে সচেস্ট থাকতে হবে। অনেকটা যৌথ-ফ্যামিলির বড় চাচার (বড় আব্বা) কাজের মত।

    ব্যয়ের ব্যাপারেও নজর দেয়া দরকার। একজন বছরের পর বছর স্পন্সর করতে পারেন, আপত্তি নেই, কিন্তু কিভাবে করবেন তার নীতিমালা করে ফেলা দরকার। যাতে অন্যরা কথা বলার সুযোগ না পায়, বা একথা বলতে না পারে নিদির্স্ট কাউকে সিসিবি আলাদা "ফেবার" দিচ্ছে।

    সিসিবি বড় হচ্ছে, শুধু "উনি আমার সিনিয়র", বা "সে আমার জুনিয়র" এই লজিকের উপর নির্ভরতা না কমাতে পারলে সমস্যা বাড়বে। ব্লগ পরিচালনার ক্ষেত্রে পেশাদার মনোভাব যেমন আনা দরকার তেমনি সদস্যদেরও বুঝতে হবে ব্লগ প্ল্যাটর্ফম হিসেবে আসলে কেমন ধরনের। এটা ক্যাডেট কলেজ নয়, এটা এক্স-ক্যাডেটদের একটা ব্লগ, এই দুটোর সীমারেখা যিনি বুঝতে পারবেন না, তাকে পূর্নাংগ সদস্যপদ দেয়ার বিরোধী আমি, তিনি যত ভালো লেখাই লিখুন না কেন, বা যত সিনিয়র হোক না কেন।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
    • সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)

      ফয়েজ ভাই, সবগুলো পয়েন্টই অনেক যুক্তিযুক্ত বলেছেন আর অনেক মাচ্যুরড।
      বিশেষ করে সানাউল্লাহ ভাই কে বড় চাচা ভাবতে আমার কোনো আপত্তি নাই ;))


      You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

      জবাব দিন
      • জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)
        মডারেটর প্যানেলে কারা কারা আছেন তা যেমন সবার জানা দরকার

        ফয়েজ ভাই এর এই পয়েন্টের সাথে বিনীত দ্বি-মত পোষণ করছি...
        মডারেটরদের পরিচয় সবার সামনে উন্মুক্ত করে দেয়া হলে ব্যক্তিগত আক্রমন বেড়ে যাবার সম্ভাবনা আছে। মডারেটরের পরিচয় জানার পর তার পক্ষে 'একজন আম সিসিবিয়ান হিসেবে বললাম' টাইপ কথা বলা সম্ভব হবে না, তার যে কোন কথাকেই 'ও আচ্ছা তুই/তুমি/আপনি তো মডারেটর' বলে সরলীকরণ করার প্রবনতাও তৈরি হতে পারে...

        #সিনিয়র-জুনিয়র রিলেশনশীপকে সিসিবি'র ভিত্তি ধরতে আমি অন্ততঃ কোন সমস্যা দেখি না। ব্যক্তিগতভাবে আমি এমন মনে করি না যে, সিনিয়র যা বলবেন তাই-ই সঠিক, কিন্তু সিনিয়রের সাথে বিতর্ক করার সময় একটা গ্রহণযোগ্য টোন অবশ্যই বজায় রাখতে হবে।

        ***আগেও অনেককে দেখেছি 'শ্রদ্ধা' নিয়ে দোয়েল চত্ত্বর, কার্জন হল, হাইকোর্ট দেখিয়েছে...সিনিয়রকে আমি শ্রদ্ধা না করতে পারি...সম্মান না করতে পারি...কিন্তু অসম্মান তো করতে পারি না...অন্ততঃ একজন ক্যাডেট হিসেবে এই ব্যাপারে আমি একদমই সনাতনী মনোভাব পোষণ করি...

        ***২ থেকে ১০ এ পূর্ণ সমর্থন জানাই বিশেষ করে ৩, ৬ ও ৭ এর কঠোর প্রয়োগ দেখতে চাই...
        ***১ একটু কেমন লেগেছে...
        বর্তমান ক্যাডেটদের লেখা মডারেশনের মাধ্যমে আসলে তো কলেজের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ শৃংখলা বিঘ্নিত হবার কথা নয়। এটলিস্ট মৌলিক লেখা (কবিতা, গল্প, উপন্যাস) 'র ছাড় দেয়া যেত বলে আমার অভিমত...


        ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

        জবাব দিন
          • কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

            সিসিবির সদস্যদের সিনিয়রিটি জুনিয়রিটি দেখলে আমার অবস্থান [৯২-৯৮] মোটামুটি মাঝামাঝি। তাই একাধারে সিনিয়র এবং জুনিয়র দুইরকম ট্রিটমেন্টই পেয়ে আসছি সবসময়। যেহেতু একেবারে প্রথম থেকেই সিসিবির খোঁজ পেয়ে এর সাথে থাকতে পেরেছি তাতে একটা জিনিস অন্ততঃ স্বীকার করতে হবে আমাকে, উত্তপ্ত তর্ক বিতর্কের সময় একজন সিনিয়রের চেয়ে জুনিয়রাই আগে এক্সপ্লোড হয়েছি বেশি। খুব কম ক্ষেত্রেই আমি একজন সিনিয়রকে এটা বলতে শুনেছিযে আমি সিনিয়র তাই আমার কথা তোমারে শুনতে হবে, বা ঝাড়ি দিয়ে জুনিয়রদের অফ করিয়ে দেয়ার। কিন্তু দুঃখের সাথে বলি, আমরা জুনিয়ররাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আগ বাড়িয়ে এই কথা বলেছি যে সিনিয়র হলেই মানতে হবে নাকি, শ্রদ্ধা করতে হবে নাকি! এই অবস্থা থেকেই হয়তো আজকে এডজুট্যান্ট স্যার এরকম একটা স্ট্যান্ড এর দিকে গেলেন। অনেকেই হয়তো বলবেন আমি একতরফা সবকিছু জুনিয়রদের দিকে ঠেলে দিচ্ছি, আসলে তা কিন্তু নয়। একেবারে শুরু থেকে আছি এবং বেশ নিয়মিত একজন সদস্যবলেই বেশিরভাগ ঘটনা দেখেছি।
            আমি শুধু সিসিবি কর্তৃপক্ষের কাছে একটি জিনিসই চাইবো এক্ষেত্রে, ভবিষ্যতে এধরণের ঘটনায় যেনো সিনিয়র বা জুনিয়র যিনিই সীমা লঙ্ঘন করবেন তাদের সবার ক্ষেত্রেই ৩,৬, ৭ এর কঠোর এবং দ্রুত প্রয়োগ।


            সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

            জবাব দিন
            • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

              সহমত সহমত। :thumbup:

              এডু স্যার, মাঝে মাঝে আমারে যে আছিব ভাই, মাস্ফ্যু ভাই, শাফি ভাই, মামুন ভাই, মশি ভাই জানের উপর হুমকি দেয় (এই যেমন, থাব্রাইয়া চিব্রাইয়া ফেলামু টাইপ) তখন আমি কি করমু??
              অইসব জুনিয়র বিদ্বেষি সিনিয়ারের বাঞ্চ্যাই। :thumbdown: :thumbdown:


              যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
              জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
              - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

              জবাব দিন
              • ফয়েজ (৮৭-৯৩)

                একটু ব্যাখ্যা করি কেন মডারেটর প্যালেন ওপেন করা দরকারঃ

                মডারেটর আমার কাছে গোপনীয় কোন ব্যাপার নয়। গোপন জিনিস বরং গুজব ছড়ায় বেশি। মডারেটর আসলে গোপন থাকেও না, জানাজানি হয়েই যায় মোটামুটি। যাদের টা গোপন থাকে, দেখা যায় মডারেটর হিসেবেও তারা হয়ত অত এক্টিভ নন। আমার এই ধারনা ভূল হতে পারে। ভূল হলে ক্ষমা প্রার্থী।

                সিক্রেট যখন ওপেন হয়ে যায় তখন মডারেটর হিসেবে যিনি থাকেন তিনি ব্যক্তি হিসেবে কিছু বললেও সমস্যা এবং বাগ-বিতন্ডা তৈরী হয়ে যাবার স্কোপ থাকে, পরিনতিতে মডারেটররা ঘোষনা দিয়ে বসেন পদত্যাগের। কারন যিনি পদত্যাগ করছেন তিনি নিজেও বুঝতে পেরেছেন, তিনি যে মডারেটর তা ব্লগের সদস্যরা জানেন, আর তাই এই প্রকাশ্যে পদত্যাগ। এটা যদি গোপনই থাকতো, তাহলে প্রকাশ্যে পদত্যাগের ব্যাপারটা আসত না।

                মডারেটর প্যালেন প্রকাশ হয়ে গেলে মডারেটররা ব্লগে স্বাভাবিক ভাবে চলতে পারবেন না, কারন তার সমস্ত কিছু একটা আলাদা ভ্যালু তৈরী করে, তাই তার আচরন পরিমিত হওয়া বাঞ্জনীয়, এই ব্যক্তি-অসুবিধা ছাড়া, মডারেটর প্যালেন প্রকাশ হওয়ার ক্ষেত্রে আর কোন সমস্যা আছে বলে আমি মনে করি না।


                পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

                জবাব দিন
              • মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

                x-( কিব্রিয়া কি এডু স্যারের কাছে আমার নামে রিপোর্ট করলি? খাড়া হাউসে আইসা নে,তোরে খাইছি। x-(

                অফ টপিক- এডু স্যারের নিয়মগুলো মেনে চলতে আমার কোন আপত্তি নেই-যথোপযুক্ত চেষ্টা করব এ নিয়ম অনুযায়ী চলতে।

                জবাব দিন
  4. সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)

    এই ব্লগে পাঠক হিসেবে আমি খুব বেশি নতুন কিন্তু না, যদিও লেখা শুরু করেছি মোটে দিন কয়েক হল। সবসময়ই দারুন ভাবে উপভোগ করতাম লেখাগূলো। খুব সপ্রতিভ আর বেশ মানসম্মত মনে হত সবসময়ই। একটা সময় আর নিজেকে বেধে রাখতে পারলাম না কমেন্ট করা বা নিজের ভাব ভাগ করা থেকে। অবশ্যই নভিসাস ড্রিল এনং রেড বুক টা মনযোগ দিয়ে পড়ে নিয়েছিলাম। উপরুক্ত যেসব পয়েন্টের প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে, আমি বিশ্বাস করি নিজের মনের মাধুরী মিশিয়ে কেউ এগুলো বানায়নি, দরকার আছে নিশ্চই। কিন্তু এর কিছু কিছু পয়েন্টে আমার কিছু বলা আছে।
    ক্যাডেট কলেজ আমাদের ভিতরে ভদ্রতা, শিষ্ঠতা, অনুশাসন এই জিনিসগুলো না চাইলেও মজ্জাগত করে যে দিয়েছে তাতে কোনো সন্দেহ নাই, আর তাই নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে নীরব প্রতিবাদ জানালেও দম বন্ধ করা পরিবেশে যুদ্ধ ঘোষনা করতে পারি না। সিসিবি সেক্ষেত্রে অনেকটাই শিথিল এবং উদারনীতিতে চলে, এমনটাই দেখে আসছি। তবে একটা কথা আমাদের সবার মনে রাখা প্রয়োজন যে, নিয়মের কঠোরতা কিন্তু দম বন্ধ করা পরিবেশের জন্ম দেয়। রাজনীতিবিদ না হলেও সবসময় দেখে এসেছি নিয়ম এবং প্রতিজ্ঞা যেনো তৈরীই হয় ভাঙ্গার জন্য। তাই সিসিবির কাছে আমার বীনিত অনুরোধ "বজ্র আটুনী ফস্কে গিড়ো" অবস্থা যেনো না হয়, বিষয়টি লক্ষ্য রাখবেন। কয়েকটা পয়েন্টের ক্ষেত্রে আমার কাছে একটু বেশি কঠোরতা অবলম্বন করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। যেমন বানানে শুদ্ধতা বা যুক্তাক্ষর সংক্রান্ত জতিলতায় কাউকে নিরুতসাহীত করা যেনো না হয়। আমি কিন্তু এখনো খন্ড ত কিকরে লিখতে হয় জানি না 😛 । ২ নম্বর পয়েন্ট টি খুব একটা স্পষ্ট না আমার কাছে। ৩ নম্বরটি তে খুব সুন্দর এবং মার্জিত ভাষায় :bash: দেয়া হয়েছে, যা আমারও মনে হয় দরকারি, ধন্যবাদ। ৪, ৫, ৬ এবং ৭ নম্বরের প্রস্তাব খুবই যুক্তিযুক্ত। ৯ এবং ১০ নম্বরের ক্ষেত্রে আমার সামান্য একটু আপত্তি আছে। সাম্প্রতিক কালের "কুলনেস" এর তাগিদে বেংলিশ চর্চার ঘোর বিরধী আমি, কিন্তু অনেক সময়ই যাথার্থ বাংলা শব্দ মনে না আসার কারণে অভ্যাসবশত টুকিটাকি ইংরেজির প্রয়োগ বাধ্য হয়েই করতে হয়। যেমন আমি বুঝতে পারছি না "পোষ্ট" বা"পয়েন্ট" এর বাংলা কি হতে পারে! আর লেখার প্রয়জনে ইংরেজী ব্যাবহার করতে হতে পারে কখনো কখনো, সেক্ষেত্রে আমি ব্লগ এডজুট্যান্ট কে অনুরোধ করব, ব্যাবহারে নিষেধাজ্ঞা না দিয়ে বাংলা বা ইংরেজী যা-ই লেখা হবে সেটার শুদ্ধতা এবং স্পষ্টতার উপর জোড় ( এম্ফাসাইজ লিখতে চেয়েছিলাম) দিতে উতসাহীত করার জন্য। ১০ নম্বর পয়েন্ট অনুযায়ী আমি নিজেও মানি অবশ্যই ব্লগের প্রাণ মন্তব্যে, তবে অনেক ক্ষেত্রেই অনেক বেশি মানসম্মত লেখার ক্ষেত্রে বিশেষ করে, আমাদের মত খুব সাধারন দের কেবল মাত্র ইমোটিকস দিয়ে মতামত জানাতে হয়। ব্লগ গুলোর মান এত বেশী ভাল থাকে যে কিছু লিখে ভাললাগা প্রকাশ করতে ইচ্ছা ও করে আবার হালকা মন্তব্য দিয়ে নিজের হালকা আমেজ ও তৈরী করতে ইচ্ছা করে না। তখন কেবল মাত্র ইমোটিকসের আশ্রয় নিয়ে কাজ সারতে হয়। বলা বাহুল্য ইমোটিকস গুলো লোভনীয়ও কম না 😛


    You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

    জবাব দিন
  5. মামুন (০০-০৬)

    এডু স্যার আমিও ব্লগে প্রায় নতুনদের একজন কিন্তু একটা কথা বলা থেকে নিজেকে মোটেও বিরত রাখতে পারলাম না। কিছুদিন আগে ব্লগে যে যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব শুরু হয়েছিল (ধর্ম বনাম মুক্তচিন্তা অথবা আস্তিক বনাম নাস্তিক যে নামেই বলুন না কেন), তার কারণে এতটাই খারাপ লেগেছিল যে আমি রাগ করে ৭দিনে একবারো ব্লগেই আসি নাই অথচ আমি যতক্ষন নেটে থাকি ততক্ষন সিসিবি ওপেন থাকে। আমি জানি আমি এই ব্লগে ৭ দিন কেন, ৭ বছর বা ৭ যুগ না আসলেও এই সিসিবি আপন মহিমায় উজ্জল থাকবে। তারপরেও আমার মনে হয় এটা ব্লগের জন্য খুব সামান্য হলেও ডিস ক্রেডিটের ব্যাপার (দু:খিত উপযুক্ত বাংলা মনে না আসায় ইংরেজি ব্যবহার করতে হলো)।

    আমার এতো কথা বলার একটাই কারণ যেন আমাদের সানা চাচার এই সুখী যৌথ-ফ্যামিলিতে (ক. রা. ফয়েজ ভাই) এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনা যেন আর না ঘটে এবং তার প্রতি যেন সবাই নজর রাখেন এবং এডু স্যার আর অন্যান্য গুরুজনেরা মিলে যেন রেডবুকে একটি সুস্পস্ট নীতিমালা প্রস্তুত রাখেন ও তার যেন খুব কড়াকড়িভাবে প্রয়োগ ঘটানো হয়।

    কমেন্টটা একটু বড় হয়ে গেল, দু:খিত :frontroll: :frontroll:
    আমার এই কমেন্ট এ কাউকে কষ্ট দেয়া বা কাউকে কটাক্ষ করার কোন উদ্দেশ্য ছিলো না। তারপরেও কাউকে কুনো ভাবে আঘাত করে থাকলে আমি আন্তরিক ভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। ছোট মানুষ ও নবীশ (খবীশ না কিন্তুক) ব্লগার হিসেবে আশা করি মাফ পেয়ে যাব :shy: :shy:

    জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

      'যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব' বলছো কেন?
      আস্তিক-নাস্তিক বিতর্ক হলেই যদি 'যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব' মনে হয় আর খুব খারাপ লাগে তাহলে সিসিবিতে এসোনা। তোমাকে কি কেউ জোর করে এনেছে ?

      নিজেই যদি বোঝ যে তুমি না আসলেও সিসিবি 'আপন মহিমায় উজ্জল থাকবে' তাহলে এসব ফালতু কথা বলার মানে কি?
      তোমার মত কিছু ছেলে, যারা কিছু হলেই সিসিবির পরিবেশ খারাপ হয়ে যাচ্ছে, আসতে ভালো লাগে না, এইসব বলে বেড়ায়, সমস্যাটাও তাদের তৈরি করা।


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
      • মামুন (০০-০৬)

        ভাইয়া বিতর্কটা সুস্থ বিতর্ক হলে আমার কিছু বলতে হতো না। কিন্তু বিতর্কটা খুব আক্রমনাত্নক এবং খারাপ পর্যায়ে চলে গিয়েছিলো বলেই আমি এমন করে বলেছি। আমার মনে হয় আরো অনেকেই আমার সাথে একমত হবে। অবশ্য আপনি বলেছেন তারাও আমার মতোই।তাই আর আমার কথা বাড়ানোর কোন সুযোগ নেই এবং কথা বাড়িয়ে আপনার সাথে বেয়াদবী করার কোন ইচ্ছাও নেই।

        না ভাইয়া আমাকে কেউ 'জোর করে' আনেনি। আমি এক্স-ক্যাডেট বলেই এখানকার পরিবেশ আমার খুব ভালো লাগে এবং আমার প্রিয় ক্যাডেট কলেজের চেনা পরিবেশ পাই বলেই এখানে আসতাম।

        যেহেতু আমি না আসলেও কিছু বাড়বে-কমবে না বরং পরিবেশ খারাপ করার বা সমস্যা তৈরি করার লোক কমে যাবে তাই ভাইয়া আর আসব না। আমি চাই না আমার কারনে (আমি জানি না আমার মত আদৌ আর কেউ সিসিবিতে আছে কিনা) কোথাও কোন সমস্যা তৈরি হোক।

        যাওয়ার আগে শুধু আপনাকে একটা কথা বলে যাই ভাইয়া, আমার এখনো মনে হয় আপনার এতো রেগে যাওয়ার মতো এতো খারাপ কিছু হয়তো আমি বলিনি। এবং সিসিবির প্রতি আপনার ভালোবাসা দেখে খুব ভাল লাগলো (কথাটা ভাইয়া অনেস্টলি বলেছি, plz dont take it otherwise.)। এভাবে চলে যাওয়াটা খুব খারাপ, যেতে হচ্ছে বলে অবশ্যই খারাপ লাগছে এবং খারাপ আরো বেশী লাগবে পরে। তবে কোন ইমোশনাল নাটক করার ইচ্ছা আমার নাই এবং সিসিবির প্রতি বা সিসিবির কারো প্রতি আমার কোন রাগ বা খারাপ লাগা নেই।

        জবাব দিন
        • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

          আমার তো মনে হয় না সিসিবি কখনো এমন খারাপ পর্যায়ে গেছে যে 'যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব' বলতে হবে। এই কথাটা যে তুমি ভুল বলেছ, সেটা বুঝতে পারোনি ?

          যেতে হলে ঘোষনা দিয়ে যেতে হয় না। ঘোষনা দেয়ার মানে হচ্ছে, আমাকে অনুরোধ কর থেকে যাওয়ার জন্যে।
          চিন্তা করো না, তোমাকে থেকে যাওয়ার অনুরোধ করতে এখন অনেক লোক আসবে। 😀


          ---------------------------------------------------------------------------
          বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
          ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

          জবাব দিন
          • মরতুজা (৯১-৯৭)

            কামরুল, কুল ম্যান। তোমার টেম্পার ইদানীং বেশি তাড়াতাড়ি হট হয়া যাইতাছে। অফিসে কি বেশি চাপ নাকি বিয়ার বয়স হইছে বইলা 😛 । ছোট ভাইগুলারে এত ঝাড়ির উপর রাখলে কেম্নে কি।

            জবাব দিন
              • মরতুজা (৯১-৯৭)

                রাগ করলা নাকি? রাইগো না। সিসিবির সদস্য সংখ্যা যত বাড়বে, নানা মুনির নানা মতের মত নানান সমস্যা, মতামতের ধরনও আসবে। আাস্তিক নাস্তিক নিয়া ক্যাচাল হবে, পোলাপাইন মারামারি করবে আবার ঠিকও হবে। কিন্তু অফ গেলে চলবে না।

                চিন্তা কইরা দেখ, বছর ্দুয়েক আগে এই সময় সদস্য ছিল মাত্র ৩০০ এর ঘরে। এখন তার ৫ গুন। সমস্যা গুনিতক হারে না বাড়লেও জ্যামিতিক হারে তো বাড়ছে। রেডবুক তো আর এমনি এমনি পরিবর্তনের প্রয়োজন হচ্ছে না। এখন তো মনে হয় দায়িত্ব আরো অনেক বেশি।

                সো কুল ম্যান। অই চাওয়ালা কই, কামুক ভাইরে এক্কাপ চা দে।

                জবাব দিন
                • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

                  আরে ধুর! আপনে দেখি পোলাপাইনের মত কথা কন।

                  নানা-মুনির নানা মত আসুক। কিন্তু খামাকা সিসিবির বদনাম করলে মেজাজ খারাপ হয়ে যায় একটু। সমস্যা নাই, আপনারা আছেন না, বেশি মাথা গরম করতেছি দেখলে ডাইকা ঠাডাইয়া দুইটা থাবড় দিয়া দিবেন। 😛

                  কেমন আছেন? মামনিটা কেমন আছে?


                  ---------------------------------------------------------------------------
                  বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
                  ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

                  জবাব দিন
              • আছিব (২০০০-২০০৬)
                যেতে হলে ঘোষনা দিয়ে যেতে হয় না। ঘোষনা দেয়ার মানে হচ্ছে, আমাকে অনুরোধ কর থেকে যাওয়ার জন্যে।
                চিন্তা করো না, তোমাকে থেকে যাওয়ার অনুরোধ করতে এখন অনেক লোক আসবে। 😀

                কামরুল ভাই,আপনার মন্তব্যে খুব দুঃখ পেলাম। আপনিও কিছুদিন আগে রাগ করে ইমোশনাল হয়ে পড়েছিলেন,আমরা দেখেছি।
                মামুন অতটা জটিল কিছু ভেবে এসব বলেনি। আপনি যেভাবে বকা দিলেন,সেটা কোনভাবেই তার প্রাপ্য ছিল না। আমরা ছোটরা হয়ত না জেনে,না বুঝে কিংবা কম বুঝে কম জেনে অনেক কিছু বলে ফেলি,কিন্তু এরকম প্রত্যুত্তর দেয়াতে নিশ্চয়ই সে অনেক কষ্ট পেয়েছে।
                আপনি সিনিয়র,আমরা জুনিওর। আপনি ঝাড়ি দিবেন,আমরা খাব,কোথাও কোন সমস্যা নেই। কিন্তু অনুগ্রহ করে একটা কথা মনে রাখবেন ভাই,আমরা সবাই-ই এক্স-ক্যাডেট,আমরা সবাই-ই সিসিবি ভালোবাসি

                জবাব দিন
                • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

                  শোন আছিব, আমি কি রাগ করে ইমোশনাল হয়ে সিসিবির নিন্দা করেছি? বলেছি যে সিসিবিতে যুদ্ধ হয়, আমার এখানে আসতে ভালো লাগে না, সাত দিন এই জন্যে আসি নাই ?
                  এটা খুবই খারাপ। আমার কাছে এটা সিসিবির বদনাম করার মতোই লেগেছে।
                  মামুন কী ভেবে বলেছে সেটা তো আমি ওর মাথার মধ্যে ঢুকে দেখিনি। আমি ও মন্তব্যে যা লিখেছে সেটারই উত্তর দিয়েছি।

                  তোমার কি ধারণা আমার মনে থাকে না তুমি এক্স ক্যাডেট বা তুমি সিসিবি ভালোবাসো?


                  ---------------------------------------------------------------------------
                  বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
                  ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

                  জবাব দিন
          • ইমরান (১৯৯৯-২০০৫)

            যথাযথ সম্মানের সাথে কামরুল ভাইকে বলছি, ভাইয়া আপনি সামান্য একটা কথার জন্য ছেলেটাকে যা শোনালেন তাতে আমারই এখন মন্তব্য করতে ভয় হচ্ছে। এখন কোনো কথা বলতে জুনিয়রদের যদি কলেজের সিনিয়র ভাইয়াদের মত কথাবার্তা শোনা লাগে তাহলে তো বলতে হবে এটা সিনিয়র'স ব্লগ। এখন তো আর আমরা কলেজে না, তাই না? একটা ভুলের জন্য কলেজ টাইপ ঝাড়ি না দিয়া একটু বুঝায়া বললে কি হয় না?


            রঞ্জনা আমি আর আসবো না...

            জবাব দিন
            • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

              মরতুজা ভাই সরি। ভেবেছিলাম আর কিছু বলবো না। এই ছেলেটা সেটা হতে দিল না।

              ইমরান
              ভয় পাওয়ার মত কি বললাম? কোন মন্তব্য করলে সেটার অর্থ বুঝে শুনে করা উচিত। ধুম করে এসে কেউ বলে দিবে সিসিবি যুদ্ধ লেগেছিল আর সেটা মেনে নিতে হবে? তাকে কিছু বলা যাবে না?
              তোমার কাছে ঝাড়ি মনে হচ্ছে, কিন্তু আমি স্বাভাবিক ভাবেই বলেছি। তুমি যা বলবা সেটা ডিফেন্ড করার মত যুক্তি-প্রমান তোমার হাতে থাকতে হবে। আর না হলে শুধু তাল মেলানোর জন্যে আলগা মন্তব্য করাই উচিত না। মামুন ছেলেটা তার পরের মন্তব্যেও স্বীকার করেনি সে কথাটা ভুল বলেছে।

              তোমার কাছে মনে হচ্ছে ঝাড়ি দিয়ে বলেছি? ঠিকাছে এর পর থেকে কোলে বসিয়ে আদর করতে করতে বলার চেষ্টা করবো।


              ---------------------------------------------------------------------------
              বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
              ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

              জবাব দিন
              • কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

                ইমরান, আছিব
                তোমাদের কোন পয়েন্টে খারাপ লেগেছে সেটা আমি বেশ বুঝতে পারছি। অন্যরাওযে বুঝতে পারছেন সেটা আশা করি মরতুজা ভাইয়ের করা কমেন্ট দেখে তোমরাও বুঝতে পারছো। কিন্তু আমারও একটা জিনিস খারাপ লাগছে। তোমরা দুজনেই কামরুলের কথার আসল জায়গা মিস করে যাচ্ছো। কামরুল কোন কথাতেই ধরেনি শুধু সিসিবি'কে নিয়ে অবান্তর উক্তিটি ছাড়া। সিসিবিকে আমরা সবাই ভালোবাসি। তোমাদের এক্টিভ পার্টিসিপেশনই বলে তোমাদের ফিলিংস অন্য যেকারো চেয়ে কম নয়। তাই মনে হয়েছে সিসিবিকে নিয়ে কিছু বলার সময় কে বলেছে এটার চেয়ে কি বা কেন বলেছে সেটা যুক্তিযুক্ত কিনা এসব ভেবে নিয়ে বলা হলো কিনা এসব দিকই আমাদের সবসময়ই সামনে চলে আসা উচিত।


                সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

                জবাব দিন
              • ইমরান (১৯৯৯-২০০৫)

                সরি কামরুল ভাইয়া,কোলে বসিয়ে আদর করতে করতে কথা বললে যে সেটা ভালো হবে আর এছাড়া ভালোভাবে বলা যাবে না, এমনটা আমি বলছি না।আর তাল মেলানোর জন্য আলগা মন্তব্যও আমি করছি না। কারো হয়তো মন্তব্য ভুল হতে পারে কিন্তু এজন্য তাকে ব্যাক্তিগতভাবে আক্রমন করাটা কি দৃষ্টিকটু নয়?


                রঞ্জনা আমি আর আসবো না...

                জবাব দিন
        • আছিব (২০০০-২০০৬)

          মামুইন্যা, তুই সিসিবি-তে আসিস তর পিসি থেইক্কা,তুই ব্লগ লিখস তর হাত দিয়া,কারো কথায় তুই অফ যাবি ক্যালা????

          আমি তরে থাকার অনুরোধ কিংবা যাওয়ার হুকুম দিমু না, নিজের ভালো তুই নিজেই বুঝস দোস্ত :hug:

          জবাব দিন
          • কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

            আছিব, তুমি মামুনকে বোঝাচ্ছো বেশ ভালো, এটাই দরকার। কিন্তু ভাষাটা খেয়াল করেছো কি বলছো না বলছো? তুই সিসিবি-তে আসিস তর পিসি থেইক্কা,তুই ব্লগ লিখস তর হাত দিয়া,কারো কথায় তুই অফ যাবি ক্যালা???? তুমি কী ভেবে বলেছো আমি জানিনা বা আমার জানারও কথা না, কিন্তু মামুনের সাথে একমাত্র কথা হয়েছে এখানে কামরুলের। কারো কথায় যদি অফ যায় মামুন তবে কামরুলের কথাতেই যাওয়ার কথা, তাইনা? আমি এরপর আর কিছু বলবোনা, বাকি বিষয়টা আশা করি তুমি বুঝে নিবে। ক্যাডেট কলেজ থেকে বেরিয়ে এসেছি আমরা অনেকদিন। তোমরায় বের হয়েছো চার বছর হয়ে যাচ্ছে। আশা করি আমার কথা তোমার ক্যাডেটিয় সিনিয়র ঝারি মনে হচ্ছেনা।


            সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

            জবাব দিন
            • মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

              আবার কি শুরু হলো এসব? x-( তা-ও আবার এডু স্যারের ব্লগে!

              মামুন, আছিব, ইমরান, কামরুল, কাইয়ুম, তোমরা সবাই প্লিজ থামো। ভুল মানুষেই করে, সিনিয়র-জুনিয়র সবাই-ই। এইখানেও আমার মনে হচ্ছে 'উদ্দিষ্ট' দুইজনেরই ভুল আছে, আর তা' বুঝতে অন্যদেরও (আছিব বা আমার নিজের) ভুল হওয়ার সম্ভাবনা আছে। কাজেই, কেউ আর এই বিষয়কে টেনে নিও না।

              অফটপিকঃ সব সময় দেখতাম কামরুল জুনিয়র সিসিবি'র সামনের সারিতে। এখন মনে হচ্ছে সে সিনিয়র সিসিবিতে আসতে চায়। ...... কামরুল, মনের কথা খুইলা কও দেহি। তবে সিনিয়র সিসিবিতে কিন্তু এক্কেবারে শেষে স্থান পাবা কয়া দিলাম। :grr:


              There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

              জবাব দিন
            • আছিব (২০০০-২০০৬)

              আল্লাহ মাফ কর,কাইয়ুম ভাই,বিশ্বাস করেন আমি মামুনকে চিয়ার আপ করতে এরকম করে বললাম,বুঝতে পারছি এখন যে ভাষাটা ''বেশি চারাইল্লা'' হয়ে গেছে,প্লিজ ভাই একটু বুঝেন,আমি কাউকে আঘাত করতে কিছু বলিনি,বেয়াদবিও আমার মাথায় আসেনি

              আমি দুঃখিত,কমেন্টটা মুছে ফেলা যায় না?

              জবাব দিন
              • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

                আছিব , ইমরান
                এই রকম কমেন্ট করে যাতে পরে মুছে ফেলতে বলতে না হয় সেজন্যেই আগে থেকে সতর্ক করে দেয়া।
                কিন্তু এটাও তোমাদের কাছে আজকাল ব্যক্তি আক্রমন মনে হয়।

                বড় বিচিত্র তোমাদের আত্ম সম্মানবোধ !


                ---------------------------------------------------------------------------
                বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
                ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

                জবাব দিন
                • ইমরান (১৯৯৯-২০০৫)

                  ১। "চিন্তা করো না, তোমাকে থেকে যাওয়ার অনুরোধ করতে এখন অনেক লোক আসবে।"
                  ২। "তোমার মত কিছু ছেলে, যারা কিছু হলেই সিসিবির পরিবেশ খারাপ হয়ে যাচ্ছে, আসতে ভালো লাগে না, এইসব বলে বেড়ায়, সমস্যাটাও তাদের তৈরি করা।"

                  সরি কামরুল ভাইয়া, বড় ভাইয়াদের সাথে বেয়াদবি করাটা আমার অভ্যাস না, জানিনা আমার কথাগুলো বেয়াদবি হিসাবে নিচ্ছেন কিনা।ওপরের উক্তিগুলো কিন্তু আপনার। কথাগুলো কি ব্যাক্তিগত আক্রমন নয়? আর আত্মসম্মানবোধের কথা না ভাইয়া সিসিবিতে পছন্দের মানুষের মুখে হঠাত এরকমকথা শুনে অভ্যাস নাই তো, তাই !!!


                  রঞ্জনা আমি আর আসবো না...

                  জবাব দিন
                  • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

                    ব্যক্তি আক্রমন নয়। কেন, বলি...

                    সিসিবি মডারেটরদের জ্জিজ্ঞেস কর কথাটা সত্যি। অতীতেও এমন ঘটেছে, কিছু হলেই কয়েকজন এসে বলে সিসিবির পরিবেশ খারাপ হয়ে যাচ্ছে, এখানে আসতে ভাল লাগে না। আবার আড়ালে আবডালে এই সব ছেলেগুলোই এখানে ওখানে গিয়ে সিসিবির বদনাম রটিয়েছে। সিসিবির মডারেটরদের হাতে এর প্রমানও রয়েছে।

                    আমি বলছি না, মামুন এমন করেছে বা করবে। কিন্তু ভবিষ্যতে যাতে কেউ না করে সেজন্যে সতর্ক করে দেয়া।

                    তুমি কি বেয়াদবি করেছো? না করে থাকলে আমি বেয়াদবি হিসেবে নেইনি।


                    ---------------------------------------------------------------------------
                    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
                    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

                    জবাব দিন
  6. আহমেদ মাশফিক রায়হান সিউল (১৯৯৮-২০০৪)

    আমি একটা ব্যাপার জিজ্ঞেস করতে চাই.....আশা করি অ্যাডজুডেন্টের রিপ্লাই পাব।

    ধরা যাক, person-A একটা কিছু পোস্ট করার পরে সেটায় person-B কমেন্ট করলো, এরপরে একজন person-C এসে person-B -কে কিছু কথা বললেন।

    এখন যদি person-B জুনিয়র হয় এবং person-C সিনিয়র হয় তাহলে সেটা যৌক্তিক নাকি অযৌক্তিক সেটা নিয়ে খুব বেশী হলে ১% মানুষ মাথা ঘামাবে কিন্তু উল্টোটা হলে জুনিয়রটার ব্যাপারে বলা যায় সে পুরো বছরের ঝাড়ি একবারেই খাবে.....

    উপরোক্ত ঘটনার উদাহরণ দেখেছি আগে। এখন আমার প্রশ্ন হল, এমন ঘটনার উদ্ভব হলে অ্যাডজুডেন্ট রোলে যারা আছেন তারা কতটা দ্রুতগতিতে ইন্টারফেয়ার করেন ?? ভবিষ্যতে কি ইন্টারফেয়ার করবেন ??? নাকি সিনিয়র-জুনিয়র নিজেরাই মিট-আপ করুক ভেবে করবেন না ???

    জবাব দিন
  7. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    এডজুট্যান্ট স্যারের সাথে সর্বান্তকরণে একমত।
    তবে স্যারের কাছে একটা আর্জি, অনেকগুলা পয়েন্ট একটু অস্পষ্ট লাগছে অনেকের কাছে। একটু যদি দুইয়েক্টা উদাহরণ দিয়া দিতেন তাইলে সুবিধা হইতো, এই আর কি ;;)


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  8. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    এই লেখাটা মন্তব্যসহ অনুসরন করে যাচ্ছি প্রথম থেকেই, কিন্তু নিজে মন্তব্য করার সময় করে উঠতে পারছিলাম না। এডু স্যার অনেক গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু বিষয় সামনে নিয়ে এসেছেন তার বেশিরভাগের সাথেই একমত। তবে দু একটি ক্ষেত্রে আমি কিছু যোগ করছি।

    ১। বর্তমান ক্যাডেটদের অংশগ্রহন বন্ধের ব্যাপারটি যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয় এটি সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ না করে কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রন করা যেতে পারে। অর্থাৎ তাদের কবিতা, গল্প, উপন্যাস বা নিদোর্ষ ব্লগর ব্লগর ধরনের লেখা প্রকাশ করা যেতে পারে, মন্তব্যের ক্ষেত্রেও একই কাজ করা যেতে পারে।

    ২। ৩,৬ এবং ৭ এ উল্লেখিত অপরাধের জন্য শাস্তির ব্যাপারে সম্পূর্ন সহমত। তবে অপরাধগুলি প্রথমে নির্দিষ্ট করে সে অনুযায়ী শাস্তি নির্দিস্ট করতে হবে। তা না হলে এগুলো নিয়েও বিতর্ক সৃষ্টি হতে পারে।

    ৩। লেখার গুনগত মানের ক্ষেত্রে একমত। এর সাথে আরেকটু যোগ করা যেতে পারে। যাদের লেখা সরাসরি প্রকাশিত হয় তাদের লেখার মান নিয়েও প্রশ্ন থাকতে পারে। এদের কোন লেখা যদি মডারেশন প্যানেলের কাছে উপযুক্ত মানের বা আপত্তিকর মনে হয় তাহলে সেই লেখকেও ব্যক্তিগত বার্তার মাধ্যমে সে ব্যাপারে উপদেশ/সতর্কবানী প্রদান করা যেতে পারে।

    ৪। ইংরেজী পরিহারের ব্যাপারে সম্পূর্ন সহমত। তবে হালকা চালে বিভিন্ন সময়ে আমরা যে বাংলা ব্যবহার করি (যুক্তাক্ষর সহ) তা নিদোর্ষ চোখেই দেখা যেতে পারে।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  9. রবিন (৯৪-০০/ককক)

    এডু স্যারের সাথে মোটামোটি একমত।
    স্যার বানানের ব্যাপারে মাঝে মাঝে একটূ ছাড় দিয়েন।
    আর ইমো ছাড়া আমি মন্তব্য করমু কেমনে? :(( :((
    সিরিয়াস কথা বলি এইবার, বেশ কিছুদিন থেকেই সিসিবিতে তুচ্ছ তুচ্ছ কারনে দেখি অনেক বিশাল বিশাল তর্ক শুরু হয়ে যায়। অনেক সময় কারন ছাড়াই।

    ফয়েজ ভাই এর পয়েন্ট গুলার সাথে একমত। স্পেশালী, ব্যয়ের ব্যাপারটায় আমরা চাইলে একটা ছক করে নিতে পারি যেহেতু সিসিবি পরিবার এখন অনেক বড়।শুধু মডারেটর প্যানেলে কারা কারা আছেন তা সবার জানা দরকার ছাড়া। কিছু ব্যাপারে আমরা মনে হয় প্রিন্সিপাল / এডু স্যারের উপরে ছেড়ে দেই। উনি যাদের পরামর্শ নেয়া দরকার মনে করবেন তাদেরটা নিবেন।

    সিনিয়র জুনিয়র রিলেশন নিয়ে কাইয়ুম ভাই সুন্দর বলেছেন। দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে, বিগত কিছুদিন ধরেই দেখতে পাচ্ছি, জুনিয়ররা সরাসরি বেয়াদপিকে স্মার্টনেস মনে করতেছে(সবাই না)। সিসিবি কে আমরা অন্যদের চেয়ে আলাদা কেনো বলি? আমাদের নিজেদের একে অন্যের প্রতি সম্মানবোধের কারনেই তো। সিনিয়ররা যেমন জুনিয়র এর মতামতকে সম্মান করবেন, তেমনি জুনিয়রকে ভুলে গেলে চলবে না যে উনি সিনিয়র। প্লিজ সবাই কথা বলার আগে একবার ভেবে বলেন।উদাহরন হিসাবে বলা যায় আছিব এর মন্তব্য।

    তুই সিসিবি-তে আসিস তর পিসি থেইক্কা,তুই ব্লগ লিখস তর হাত দিয়া,কারো কথায় তুই অফ যাবি ক্যালা???

    এটা কোন ক্যাডেট এর ল্যাংগুয়েজ হতে পারে না ক্যাডেট কমিউনিটি তে। কামরুল যদি বেশি বলে থাকে বা কারন ছাড়া ঝাড়ি দিয়ে থাকে, কেউ না কেউ কিন্তু কিছু বলার আগেই কামরুল কে তা বলেছে (মরতুজা ভাই)। এ রকমই হওয়া উচিত।
    সবাই দায়িত্ব নিয়ে কথা বললেই কিন্তু অনেক কিছু এড়ানো সম্ভব।
    সবাই ভালো থাকবেন।

    জবাব দিন
  10. রকিব (০১-০৭)

    রেডবুক পরিমার্জনের জন্য একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ নেয়ায় সিসিবি এডু স্যারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এটা সত্যি যে, সিসিবির পরিসর এবং সদস্য বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন আরো কিছু নিয়ম কানুন রেডবুকে সংযোজনের প্রয়োজন দেখা দিয়েছে। সাধুবাদ রইলো।
    উপরের ৮ নম্বর পয়েন্টটার ব্যাপারে আমার নিজস্ব কিছু অভিমত আছে। বলে ফেলিঃ :-B

    ছাত্রজীবন কিংবা আরো সুনির্দিষ্ট করে বললে উচ্চ মাধ্যমিক পাঠ সমাপ্তির সাথে সাথেই আমাদের লিখিত বাংলার (গদ্য/সাহিত্য) ব্যবহার খানিকটা কমে আসে। ফলে হয়তো দীর্ঘ বিরতির পর কিংবা এমনিতেই কখনো বাংলা লিখতে গেলে অনেক ক্ষেত্রেই প্রাথমিক পর্যায়ে কিছু বানান ভুল হওয়াটাই স্বাভাবিক। সেক্ষেত্রে আমরা পাঠকরা যদি এগিয়ে আসি তাহলে দারুন হতো। স্পষ্ট করে বললে ধরুন কোন পোষ্টে যদি বানান ভুল থাকে, তাহলে সেগুলো যদি আমরা দেখিয়ে দেই মন্তব্যের ঘরে, তাতে পাঠক মন্তব্য থেকে সঠিক বানান দেখে ঠিক করে নিতে পারবেন। প্রয়োজনে বানান সংশোধনের পর মন্তব্যটা মুছে দেওয়াও যেতে পারে। আগে মাহমুদ ভাই(৯৯-০৫) বানান শুদ্ধিতে নানা পোষ্টে সহায়তা করতেন (যদিও আজকাল উনাকে খুঁজে পাচ্ছি না 🙁 )।
    এভাবে পোষ্টে বানান শুদ্ধিকরণে সহায়তা করাটা বোধকরি দৃষ্টিকটু হবে না। কারণ এতে করে লেখক পাঠক সবারই বানানে আরো সমৃদ্ধ হবার সু্যোগ আসবে বলেই মনে করি। সবাই কী বলেন?

    ব্যক্তিগত ভাবে আমি সবাইকে আমার পরবর্তী কিংবা পূর্ববর্তী পোষ্টগুলোতেও আমন্ত্রণ জানাচ্ছি আমার ভুল বানানগুলো ধরিয়ে দেবার জন্য।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  11. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    দুদিন নেট ছিল না তাই এই লেখাটা দেরি করে পড়লাম।
    নিয়মের ব্যাপারগুলা অনেকদিন থেকে কিছু কিছু বুঝতে পেরেছিলাম যে খুব দরকার সেখানে এডু এরকম একটা লেখা দেওয়াতে খুব ভাল লেগেছে। এই ব্লগের একেবারে প্রথম দিককার একজন হিসেবে বলতে পারি এখন পর্যন্ত সিসিবির সব কিছুই লক্ষ্য করেছি। সময়ের সাথে সাথে রেডবুকের পরিমার্জনা খুবই ভাল লেগেছে।
    ১ এর ব্যাপারটা আমার কাছে খারাপ লেগেছে তবে নিশ্চয়ই যারা চিন্তা ভাবনা করে এটা করেছে তাদের যুক্তি আছে। আশা করি বর্তমান ক্যাডেটরা এর টেকনিক্যাল সমস্যা গুলো বুঝতে পারবে।
    ২ নং এর ব্যাপারে আরেকটু খোলাসা করলে ভাল হত। ফ্যামিলি বলতে কি শুধু স্পাউস বুঝাবে নাকি ভাই/বোন এরাও সদস্য হতে পারবে।
    বাকিগুলো আমার কাছে ঠিকই মনে হয়েছে।

    জবাব দিন
  12. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    সহমত।

    জানি হয়ত কোনো গুরুতর কারণ আছে, তবু বর্তমান ক্যাডেটদের অনুপস্থিথির বিষয়টা খারাপ লাগছে। লেখালেখির চর্চাটা যত আগ থেকে শুরু করা যায় ততই ভালো।

    ফয়েজ ভাই, মডেরেটরদের নাম জানার পর আমারে এডু -মডুর ভয় দেখিয়ে আর কোনো লাভ হবে না( 😐 😐 😐 😐 )


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  13. রকিব (০১-০৭)

    ইমোর ব্যাপারে বোধহয় একটু বোঝার ভুল হচ্ছে। :-B
    মন্তব্যে ইমো ব্যবহারে সম্ভবত এডু স্যার কোন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন নি; কেবল অতিরিক্ত ইমো ব্যবহারকে নিরুৎসাহিত করেছেন। সম্ভবত, অতিরিক্ত ইমো ব্যবহার করলে ওয়ার্ডপ্রেস এটাকে স্পাম হিসেবে চিহ্নিত করে তা প্রকাশ না করে মডারেশনে পাঠিয়ে দেয়। এজন্যই বোধহয় এডু-মডুরা অতিরিক্ত ইমো দিতে মানা করছেন। :-B :-B
    অফটপিকঃ আইজকাল নিজেরে ব্যাপক জ্ঞানী জ্ঞানী লাগতেছে। ;)) ;))


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  14. ব্লগ এডজুট্যান্ট

    ১. বর্তমান ক্যাডেটদের মধ্যে খুব অল্পই এখানে লিখেছেন আগে। তাই এই সিদ্ধান্তে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও খুবই ন্যুনতম হচ্ছে। তবে মডারেটর প্যানেল এবং সিসিবির কয়েকজন সিনিয়র সদস্যের সাথে আলোচনা করেই আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।এখানে আরো একটি ব্যাপার উল্লেখ্য, বর্তমান ক্যাডেটদের মধ্যে দু'একজন ছাড়া বেশিরভাগের লেখাই বিষয়বস্তু বিচারে সিসিবিতে প্রকাশ উপযোগি হয়ে উঠতে পারেনি।
    ২. প্রাক্তন ক্যাডেটদের পরিবারের সদস্যদের সিসিবি’র সদস্যপদের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলতে আমরা এতদিনের প্রচলিত ব্যবস্থাটিকেই বুঝিয়েছি যার মাধ্যমে বেশ কয়েকজন সিসিবিতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করছেন পোস্ট এবং মন্তব্যে। এখনও পর্যন্ত আমরা স্পাউস ছাড়া ভাই/বোন এরকম কারো ইচ্ছা বা আবেদন পাইনি। ভবিষ্যতে এরকম কারো আবেদন পাওয়া গেলে অবশ্যই বিবেচনা করা হবে সদস্যদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে।
    ৩. পোস্টের ৩,৬ এবং ৭ নম্বর পয়েন্টে সিসিবি কর্তৃপক্ষ তাদের কঠোর অবস্থান সবার সামনে ব্যক্ত করছেন। এই বিষয়গুলোর ব্যত্যয়কারিদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত প্রমাণ প্রদর্শন সাপেক্ষে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে।
    ৪. যেকোন লেখার অর্থাৎ ব্লগ পোস্টের বানান শুদ্ধ করে লেখার প্রতি আমরা জোর দিয়েছি। কথ্য বা মজা করে লেখা মন্তব্যের ব্যাপারে কিছুটা শৈথিল্য অবশ্যই থাকবে।
    ৫. ইংরেজির প্রাধান্য অথবা বিনা কারণে পোস্টে বা মন্তব্যে রোমান হরফ ব্যবহার করাকে আমরা নিরুৎসাহিত করছি। যেমন পোস্ট, পয়েন্ট, মডারেটর প্যানেল না লিখে Post, Point, Moderator Panel এইভাবে রোমান হরফে লেখাকে এড়ানোর জন্য বলা হচ্ছে।
    ৬. পোস্টে ইমোটিকনের ব্যবহার লেখার সৌন্দর্য্যহানি ঘটায়। মন্তব্যে অবশ্যই ব্যবহার করা যাবে, কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত ইমো মন্তব্যেরও সৌন্দর্য্যহানি ঘটায় বলে একে আমরা কিছুটা লাগাম পড়াতে বলছি।

    আশা করি সবার কাছেই পরিষ্কার হয়েছে। আরও দুই একদিন আলোচনার পর আমরা নিয়মগুলো সিসিবি'র রেডবুকে যোগ করে দিব। স্বতস্ফুর্ত আলোচনার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

    জবাব দিন
  15. নাজমুল (০২-০৮)

    প্রথমে ছোট একটা কমেন্ট করলেও এখন কিছু কথা বলতে চাই 🙂

    সিনিয়র জুনিয়র এর ব্যাপারটা নিয়ে কিছু কথা বলতে চাই। আমার কাছে ক্যাডেটদের অন্যতম ঐতিহ্য হিসেবে তাদের সিনিয়র জুনিয়র রিলেশন্টা অসাধারণ মনে হয়। কেউ যখন বলে, এখনো কি কলেজে আছি নাকি? বললেই হলো???
    আসলে এধরণের কথা শুনলে খুব খারাপ লাগে, ব্যাপারটা তখন খুব সাধারণ বলে মনে হয়।
    সত্য কথা বলতে কি, আমার কাছে ভালো লাগে যখন কোনো সিনিয়র যখন বলে "আরে জুনিয়র আছে চিন্তা কি"" 😀
    কিছুদিন আগে মিরপুরে আমাদের কলেজের বেশ কিছু ভাইয়া আর আমাদের ব্যাচের কয়েকজন একসাথে ইফতার করলাম। ইফতারের পর রনি ভাই আইস্ক্রীম খাওয়াতে চাইলেন 😀
    আমরাও রাজি, তো উনি বেশ কিছুদুর যাওয়ার পর, আবার ফেরত আসলেন।
    এসে আমাদের বললো জুনিয়র থাকতে আমি যাই ক্যান =))
    তারপর ৫০০ টাকার একটা নোট দিয়ে বললেন, "" যা কিনে আন"" B-)

    জবাব দিন
  16. আদনান (১৯৯৭-২০০৩)

    আমার মনে হয় দু'একটি শব্দে ইংরেজীর হরফ ব্যবহার এড়ানোর ব্যাপারে নিয়মটা ফলো করা যেতে পারে তবে যেখানে একটা পুরো বাক্য ইংরেজীতে না লিখলেই নয় সেখানে শিথিলতা থাকা উচিৎ।
    যেমন ধরা যাক আমার এই কমেন্টে আমি 'অনুসরণ'-এর জায়গায় 'ফলো' লিখেছি, কিন্তু follow লিখিনি (রোমান হরফ ব্যবহার করা থেকে বিরত থেকেছি)। এখন যদি আমি পুরো একটা সেন্টেন্স ইংলিশে লিখতে চাই যেমন The quick brown fox jumps over the lazy dog... তখন যদি নিয়মটা এমন হয় যে আমাকে "দ্য কুইক ব্রাউন ফক্স জাম্পস ওভার দ্য লেইজী ডগ" লিখতে হবে তখন বিষয়টা একটু বেশী-ই বিরক্তিকর হয়ে দাঁড়ায়।
    কারো কিছু বলার থাকলে বলতে পারেন। 🙂

    জবাব দিন
  17. আসিফ আব্দুল্লাহ (০৩-০৯)

    আমি ছোট মানুষ তাই ছোট একটা প্রশ্ন, আচ্ছা ভায়া কেউ যদি ইন্ডিভিজুয়াল কারো উপর এটাক করে লেখার মাধ্যমে তাহলে এর শাস্তি কি আদৌ আছে থাকলে কী?


    @Asif@

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।