” শ্রাবণ মেঘের আড়ালে “

ব্লগে এটা আমার প্রথম লেখা। এটা ক্যাডেট কলেজ নিয়ে লিখিনি । আমার একটা স্বপ্ন নিয়ে লিখেছি । আশা করি এর পরের লেখাগুলো ভালো লাগবে । ;;; ;;;

” শ্রাবণ মেঘের আড়ালে “

বৃষ্টিতে ভিজতে আমার খুব ভালো লাগে। বৃষ্টি ঝরলেই মনে হত যদি একজন সঙ্গী পেতাম, একসাথে বৃষ্টিতে ভেজার জন্য ! তার হাত ধরে হারিয়ে যেতাম প্রিয় বরষার মাঝে। বরষার প্রতিটি সকালে যাকে আমি কদম ফুল দিয়ে শুভসকাল জানাতে পারব। যাকে আমি সবসময় কাছে পাব একান্ত আপন করে। যার জন্য মরে যেতেও কোন কষ্ট নেই। যাকে আমি অনেক ভালবাসতে পারব। এমন ই একজন………।
আমি বুঝতেও পারিনি আমার সবচে প্রিয় বন্ধুটিই একদিন আমাকে বলবে ” চলনা বৃষ্টিতে ভিজি! ”
ভালোবাসার নীল আকাশটা যেন আমাদের জন্যই এততা নীল। তার হাত ধরে হারিয়ে যেতে চাই রাজাহীন কোন রাজ্যে। তাকে নিয়ে ভাবতে ভাবতে আনমনে হারিয়ে গিয়েছিলাম আমার প্রিয় বৃষ্টির মাঝে। দুজনেই হাত ধরে ভিজছি, যেন কতদিন প্রাণভরে বৃষ্টিতে এমন ভিজিনি।
আমার প্রিয় মানুষটির হাত ধরে বৃষ্টিতে ভিজছি। চিন্তা করতেই ভালো লাগছিল ।
হঠাৎ খেয়াল হল, আমার বিছানা, কাপড় সবকিছু ভিজে একাকার ! লাফিয়ে বিছানায় উঠে বসলাম। দেখি সেই চিরচেনা মুখটা আমার সামনে আমার দিকে তাকিয়ে আছে । এক হাত কোমরে আর আরেক হাতে একটা বালতি ধরে দাঁড়িয়ে আছে । চোখ মুখ তার রাগে জ্বলজ্বল করছে। হঠাৎ চেঁচিয়ে বলল, ” কতক্ষণ ধরে ডাকছি, ঘুম থেকে উঠতে ইচ্ছা করে না? অফিস যেতে হবে সেদিকে কি খেয়াল আছে? ” আমি একটা মুচকি হাসি দিতেই সেও হেসে দিল। ওর হাসি দেখে আমি ভুলেই গেলাম যে আমার গায়ে পানি ঢালা হয়েছিল। তারপর সে বিছানা ঠিক করতে করতে মিট মিট করে হাসছে। এই মুখটার দিকে তাকালে আমি হারিয়ে যাই কোন এক শ্রাবণ মেঘের দেশে। সেই শ্রাবণ মেঘের আড়ালে আনমনে খুজে পাই এক অনাবিল প্রশান্তি।, যখন দেখি সেই চিরচেনা শান্তশিষ্ট মুখে এক চিলতে হাসি……………।।
………………………… :hug: :hug: :hug: 😡 😡 😡

১,০৬২ বার দেখা হয়েছে

১৮ টি মন্তব্য : “” শ্রাবণ মেঘের আড়ালে “”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।