আমার (ক্যাডেট) জীবনের প্রথম চুরির ঘটনা

তখন ক্লাস ৮ এ পড়ি। প্লান করলাম লিচু চুরি করব। মূল দল এ আছি আমি,আসাদ আর কুত্তা(ছদ্দ নাম কারন ও কুত্তার মত ডাকতে পারত)ওর কাজ ছিল পাহারা দেওয়া।
ওকে দিয়েছি ক্যান্টিনের কোনায়। রাত ৩ টা। আসাদ এসে আমাকে ঘুম থেকে ওঠায়। সবার পরনে ছিল কাল প্যান্ট,খাকী পুল ওভার আর পিটি সু,প্রথমেই ঘাপলা,বৃষ্টি পড়ছে,একবার মনে হলো প্লান বদল করি।
পরে সবার মত দিল না । কথা মত যে যার যায়গায় অবস্থান নিল। ধুবি শপের কাছের গাছে আমি তখন গাছের উপর। এমন সময় শুনি কুত্তার ডাক। আসাদ বলল নেমে আয় গাছ থেকে। আমি বললাম না আগে দেখে আয় কুত্তা কি করছে। আমি আর কি করব গাছে বসে আল্লাহর নাম নিচ্ছি। প্রায় ২০ মিনিট পরে এসে ও বলল যে আমাদের কুত্তা মহা আরামে গাছের সাথে হেলান দিয়া ঘুমাচ্ছে আর ওর পাশে কলেজের আসল কুত্তা ডাকছে। কি আর করা। আমি গাছ হতে নামছি লিচু নিয়ে আর ঠিক এ সময় দেখি গার্ড হাজির। আর কই যাই।দে দৌড়…………,যখন হাউজে গেলাম দেখি শুধু কিছু ডাল আর পাতা ছাড়া কিছু নাই। প্রথম মিশন ফেল আর । একটা কাজ হয়েছে তা হলো আসার আগে আমাদের মাঝে কেও একজন মানুষের বিষ্ঠা পাড়িয়ে এসেছিল । ফলা ফল পুরা করিডর পরের দিন পিটি তে যাবার সময় গন্ধ। হাউস বেয়ারা সুলতান ভাইয়ের বক বকানি কে করেছে এই কাজ…।। কারন তার ই তো পরিষ্কার করতে হবে।।

প্রথম লিখলাম ।কেমন হল যানাবেন……

১,৬৫৩ বার দেখা হয়েছে

৩২ টি মন্তব্য : “আমার (ক্যাডেট) জীবনের প্রথম চুরির ঘটনা”

  1. রায়হান আবীর (৯৯-০৫)

    আহ্‌!! সিরাজ ভাইযে...

    ভাইয়া আপনার পোস্টিং কই এখন? লেখা ভালো হইছে। তবে আপনাদের ব্যাচ যেই পরিমাণ ডেয়ারিং কাজ কলেজে কর্ছে তার তুলনায় এই কাজটা কিছুই না। সময় করে সেগুলাও ছাড়েন।

    রায়হান
    ২২তম ইনটেক
    শরীয়তুল্লাহ হাউস
    বিসিসি

    জবাব দিন
  2. সামিয়া (৯৯-০৫)

    লেখা সুন্দর হয়েছে,
    একবার জামরুল চুরি করতে গিয়ে ডিএমের সামনে পড়েছি...স্যার খুব গম্ভীর আর রাগী রাগী চোখে তাকায় থাকলেন কিছুক্ষণ,
    তারপর কাছে এসে ফিসফিস করে বললেন, তাড়াতাড়ি কর, কেউ এসে পড়লে খবর আছে।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।