অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে…

{কয়েকদিন আগে আমাদের কলেজের একজন অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছিল। তার পুরো ঘটনার বিবরণ দিয়ে সে আমাদের intake yahoo group এ একটি mail করে, তা বঙ্গানুবাদ করে এইখানে পোস্ট করলাম}

সোমবারে বাসে আমার পাশের এক লোক অতি কৌশলে আমাকে একটা ডাব কিনাইসে, ডাব বিক্রেতাও এর সাথে জড়িত। আমি বুঝতে পারছিলাম যে আমি বোকামি করে ডাবটা কিনতেছি, কিন্তু আমার মাথায় ছিল না যে এইটা আজ্ঞান পার্টি হতে পারে। তারপর আমি শাহবাগে নামার পর দেখি ওই লোকটা আমার পিছে পিছে…তখন আমি বুঝলাম, কোনো একটা গোলমাল আছে। তখনও আমি শারিরীক ভাবে ঠিক আছি।

রিকশাতে উঠলাম বুয়েট এ যাবার জন্য। টি-এস-সি পার হবার সময় বুঝলাম আমার চোখে অসুবিধা হচ্ছে, সবকিছু multiple দেখতেসি। মনে মনে ভাবলাম, মানুষ আসলে এমনি দেখে…তারপর ঠিক পরের মুহুর্ত থেকে মঙ্গলবার সকাল অব্দি কিছু মনে নাই।

(এই অংশটা আমি পরে শুনেছি আমার এক classmate এর কাছ থেকে, কারন আমার স্মৃতিতে তা এখন নাই…)

কোনোভাবে আমি রিকশাতে করে বুয়েটে গেসিলাম, রিকশাওলাকে টাকাও দিসিলাম, mobile, moneybag সবই সাথে ছিলো। class এ গিয়ে একজনকে বলি, “তোকে দুইটা দেখতেসি”। ওরা ভাবলো, আমি ফান করতেছি, আমাকে বাথরুমে নিয়ে গেল রুবেল। বেসিনের সামনে দাড়ায়ে পরে যাচ্ছিলাম। তারপর ওরা বুঝল, কাহিনী খারাপ, আমি হয়ত মাল খাইসি। আমকে বলল, “হাসপাতালে চল”। আমি বললাম, “ধুর, এইটা কিছু না, ঠিক হয়ে যাবে”। তারপর আমাদের class এর একটা easy chair ছিল, ওইটাতে দিলাম
ঘুম, আর আমাকে কেউ উঠাইতে পারে নাই, বাসায় ফোন করলো, আমাকে hollo family তে নিয়ে যাওয়া হইল।

(বাকি অংশটুকু আমার মনে আছে)

মঙ্গলবার সকালে চোখ মেলে দেখি আমি একটা রুমে। আমি জিজ্ঞেস করলাম, “আমি কোথায়? আমি এইখানে কেন?” আমার পাশে কে ছিল তা মনে নাই, দিলাম তখন বমি করে। পরে বিকালে চোখ মেলে দেখি পরিচিত কিছু মানুষ, কিন্তু আমি একটু পর পর ঘুমিয়ে পরতেসিলাম। রাতের দিকে ঘুম ভাংল। তারপর থেকে আমি মোটামুটি বুঝলাম আমি কোথায় এবং কেন। বুধবার দুপুরে বাসায়ে চলে আসলাম।

কাহিনী শেষ।

বি. দ্রঃ এই পোষ্ট এর একমাত্র উদ্দেশ্য হল আমাদের সবার সচেতনতা বৃদ্ধি। আমারা সবাই এরপর থেকে বাসে উঠে ডাব খাওয়া থেকে বিরত থাকবো আশা করি…সবশেষে আমাদের এই victim বন্ধুকে ধন্যবাদ জানাই তার ঘটনাটি CCB তে প্রকাশ করার অনুমতি দেবার জন্য।

৯৩৯ বার দেখা হয়েছে

৮ টি মন্তব্য : “অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে…”

  1. কদিন আগে আমার এক মামাকেও এমন ডাব খাওয়ায় দিইয়ে সব কিছু নিয়ে গেছে।আর সবচেয়ে বড় কথা উনি দুদিন ধরে অজ্ঞানের মত ছিলো।সবার সাবধান হওয়া উচিত।

    জবাব দিন
  2. রায়হান আবীর (৯৯-০৫)

    কয়েকদিন আগে আইইউটিতেও সেম কাহিনী হইসে। আইইউটির বাইরে এক স্টুডেন্ট ডাবের পানি খেয়ে অজ্ঞান হয়ে গেসিল। তারপর আর কি... যা ছিল সব নিয়া ফুটছে...

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।