ডিম ভাইস তে আছে

মাঝে মাঝে লেখার ইচ্ছা জাগে কিন্ত কি লিখব তা ভেবে পাই না। তাছাড়া ব্লগে এ লেখার মত নিজেকে এত বড় লেখক ও মনে হয় না । কলেজে পড়ার সময় মাঝে মাঝে মনে হত দেখি লিখতে পারি কিনা কিন্ত পরে লেখা আর হত না, একটা ভয় কাজ করত ,মনে হত আমার লেখা পড়ে আবার না সবার মাঝে হাসাহাসির রোল পড়ে যায় । তবে এখন নিজেকে অনেক ফ্রি মনে হয় আর তাছাড়া লেখার কাজ়ে কলমের ব্যবহার না থাকায় মনে হয় কলম টা ধরে আসছে না । এই তো বেশ কিছু দিন আগে আমার একজন খুব প্রিয় সিনিয়র আমার পিসি তে অভ্র সফটওয়্যার ইন্সটল করে দিলেন । স্যার কে অনেক ধন্যবাদ । প্রযুক্তির কল্যানে মনের ভাব প্রকাশ করতে পারার জন্য অভ্র সফটওয়্যারটি যিনি তৈরী করেছেন তাকেও অনেক ধন্যবাদ জানাচ্ছি । ক্যাডেট কলেজ ব্লগে এটা আমার প্রথম পোস্ট , জানি না এটা হয়ত অনেকের কাছে ভাল নাও লাগতে পারে তাই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি ।

আমি লেঃ থাকার সময় আমাদের Basic Course এর একটা মজার কাহিনি শেয়ার করতে চাই। আমরা ছিলাম ২৫ জন । রাতের বেলা খাবার সময় প্রায় প্রতিদিন ডিম খাওয়া নিয়ে সবার মাঝে কঠিন একটা প্রতিযোগীতা চলত । রাতের বেলা পড়াশোনা শেষ করার ১০ মিনিট আগে থেকেই সবাই মেসে ডিম ভাজির Order দেবার জন্য টেলিফোন লাইনে লম্বা লাইন দিত । আবার আরেক party মেসে আগে যাবার জন্য ১০০ মিটার Sprint দেবার জন্য Warm Up শুরু করত । অবশেষে মেসে আসা যথারীতি ডিমের জন্য Wait করতে থাকা । মেসের একপাশে কেউ হয়ত একটি ডিম ভাজি পাওয়ার আনন্দে বিভোর আরি অন্য পাশে হাহাকার । আমাদের একজন মেসওয়েটার ছিল রেজাউল ভাই সবাই উনাকে রাজাউল ভাই বলে ডাকত কারন উনি অনেকগুলো বিয়ে করেছিলেন । যাই হোক রাজাউল ভাই কে ডিমের কথা বলা হলে উনি বলতেন ‘ডিম ভাইস তে আছে’ । কেউ কেউ আবার দেরী সহ্য করতে না পেরে রাজাউল ভাই কে বলত মুরগী কি ডিম পাড়া শুরু করতে আছে ………নাকি ডিমে তা দিতে আছে ………।।

১,৫২৩ বার দেখা হয়েছে

২৩ টি মন্তব্য : “ডিম ভাইস তে আছে”

  1. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    সহল, ব্লগে স্বাগতম, তোমার লিখাটা খুব ভাল লাগল।

    আমরা সবাই তোমার মতই, প্রথাগত লেখক নই, নিজেরাই লিখি, নিজেরাই পড়ি আর নিজেরাই হাসি হা হা করে। পানিশম্যান্ট, গালি, বকা, আড্ডা সবই আছে।

    প্রতিদিন না হলেও কিছুদিন পর পর হলেও আসবে, মজা লাগবে তোমার, আমরাও খুশি হব, এটা আমাদেরই ঘরবাড়ি।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  2. হাসনাইন (৯৯-০৫)

    সহল ভাইজান ব্লগে স্বাগতম। 🙂

    আবার আরেক party মেসে আগে যাবার জন্য ১০০ মিটার Sprint দেবার জন্য Warm Up শুরু করত

    কলেজে স্পেশাল ডিনারের আগে পোলাপাইন "বিয়াম কইরা লই" বইল্লা চিৎকার কইররা ওয়ারম আপ শুরু করত। 😀

    জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আমরা মাঝে মাঝে আরেক্টু বাড়িয়ে বলতাম, মোরগ মাত্র মুরগীর দিকে তাকিয়েছে, ডিম পাড়ার আগে আরও অনেক কাজ বাকি।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  4. সাইফ (৯৪-০০)

    অই দুষ্ট পোলা,এইগুলা কি ল্যাখস,তুমি হালায় কাম করতে পারো আর মুরগি কেন পারব না,মুরগির কি অই জিনিস নাই,ছোট হইলেও ত আছে,নাকি আহসানের নাই..।..।............। :party:

    সহল,
    সু স্বাগতম...............।লাগে রাহো টারজান ভাই...............কি মাইণ্ড খাইলি নাকি দোস্ত.........।।

    জবাব দিন
  5. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)
    আমরা সবাই তোমার মতই, প্রথাগত লেখক নই, নিজেরাই লিখি, নিজেরাই পড়ি আর নিজেরাই হাসি হা হা করে। পানিশম্যান্ট, গালি, বকা, আড্ডা সবই আছে।

    প্রতিদিন না হলেও কিছুদিন পর পর হলেও আসবে, মজা লাগবে তোমার, আমরাও খুশি হব, এটা আমাদেরই ঘরবাড়ি।

    ফয়েজ ভাই, আমি যদি সিসিবিতে না থাকতাম-আপনার এই দুই লাইন পড়ার পর নিয়মিত সদস্য হয়ে যেতাম... :boss:

    সহল ভাই, বাড়িতে স্বাগতম! 🙂


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  6. ওবায়দুল্লাহ (১৯৮৮-১৯৯৪)

    হুম্‌ম। সহল।
    অনেক দিন পর এলাম।

    আজকাল লেখালেখি তো সব 'দ্রুত ও নিশ্চিত'দের হাতে চলে যাচ্ছে। :clap:
    কলম ঘষাঘষির দিন তো আর নেই - কেবল কী বোর্ড এ ঠোকাঠুকি...

    তাই - লাগুক হাওয়া - আর চলুক লেখা লাগাতার...

    অনেক শুভেচ্ছা।
    সাথে একটা ফ্রী প্লাস দিলাম।


    সৈয়দ সাফী

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।