জন্ম

জন্ম
মুহাম্মদ ওবায়েদুল্লাহ

নারীর অস্রুত আতুরের গন্ধ
শরীরে লেগে আছে,
ভালবেসে তোর বুকে লেখা কবিতা
গান হয়ে দোতরায় আজো তেমনি কাঁদে,
বাধ ভাঙ্গা জোয়ার জলে
জীবন সাঁতরিয়ে ডাঙ্গায় উঠে চোখ মেলে
দেখে মানুষের মুখ ।

ভোরের আলোয় পদর্া তুলে
রৌদ্র উকি দেয়,
আলিঙ্গনে আকে তোর গভর্ে গল্প গাঁথা
সুখ হয়ে কপোলে আজো তেমনি হাসে,
শিকল ভাঙ্গা রক্ত লালে
স্বাধীন দেশ মাথা তুলে সোজা দাঁড়ায়
দেখে পৃথিবীর লোক।

ডাকে নতুন অথবা পুরাতন এক নামে
পৃথিবীর মানচিত্রে।

০৭/১০/২০১৫ রাত্রি ১২:৫১
ঢাকা।

৩ টি মন্তব্য : “জন্ম”

  1. ওবায়েদুল্লাহ (৬৮-৭৪)

    প্রত্যুত্তর না পেলে ও ক্লান্তিহীন তোমার চেতনা, তজ্জন্য অবশ্যই তোমাকে সাধুবাদ । প্রথম দিকে অনেকেই মন্তব্য করে সরে গেছে উত্তর না পেয়ে, জীবন তো এমনই আর সেটাই স্বাভাবিক। আমি কিছুটা অন্যরকম , অবশ্যই সবাই তাই - আমি ও ব্যাতিক্রম নই। সবার কাছে তাই বিনয়, ভুল ভেবে কেউ যেন ভুল না বোঝে।
    সমস্ত মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : খায়রুল আহসান (৬৭-৭৩)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।