গুঁড়ো দুধ!!!!

২০০১ সাল। স্থানঃ ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজ ড্রিল গ্রাউন্ডে নামার সিঁড়ি।
মাস মনে করতে পারছি না। রাত ১২ টা বেজে ১০ মিনিট।

একটু আগেই আইয়ুব বাচ্চু (এল আর বি) র কনসার্ট শেষ হয়েছে। তার আগে একটা কালচারাল শোতে উপস্থাপনা করেছেন গিয়াস ভাই। কনসার্টের এক পর্যায়ে দেখলাম বাচ্চু ভাই গিয়াস ভাইয়ের খুব প্রশংসা করল। তাঁকে স্পেশাল থ্যাংকস জানালো।

আমি একটু খোঁজ নিয়ে জানতে পারলাম গিয়াস ভাই আমাদের কলেজ এর এক্স ক্যাডেট।আমাদের থেকে ১৮ ব্যাচ সিনিয়র। কলেজ কালচারাল প্রিফেক্ট ছিলেন। খুবই স্মার্ট, কথাবার্তা এখনকার যুগের RJদের চেয়ে কোন অংশে কম না। মনে মনে ভাবলাম আহ… এক্স ক্যাডেট হলে সবাই কত্ত স্মার্ট হয়ে যায়!! একদিন আমরাও হব…

গিয়াস ভাইকে ঘিরে আমরা বসে আছি। উনার সময়কার কলেজ আর এখনকার কলেজ নিয়ে তুলনা আর স্যারদের নিক নেম নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। আমরা অবাক হয়ে শুনছি উনার সময়কার ভয়াবহ দিনগুলির কথা। কতবার কলেজ থেকে পালিয়েছেন আর কত মার খেয়েছেন এই মাপকাঠিতে উনার কথামত আমরা পরাজিত হলাম।

কথার একপর্যায়ে কেউ একজন ভাবির কথা জিজ্ঞাসা করল। উনি হাসতে হাসতে বললেন, ধুর এখনো ত বিয়েই করি নি। এখনো করেন নি যে?
করবেন না?

উনি হাসছেন, আর বললেনঃ “বাজারে কৌটোয় গুঁড়ো দুধ পাওয়া গেলে রোজ করে গরুর দুখ কেন খাব?”

উনি বিদায় নিয়ে চলে গেলেন। সবাই নিশ্চুপ। একজন আরেকজনের দিকে তাকাচ্ছে। একজন তো বলেই ফেলল কি বললেন ভাই?

সাথে সাথে রউফ বলল, চুপ শালা বুজস নাই কি কইসে? আমিও হা করে তাকায়া থাইকা এমন ভাব করলাম সবই বুজছি। হাউজে ফিরে যাওয়ার সময় দেখলাম সবাই কানাকানি করে কি যেন বলাবলি করছে আর হাসতেছে।
(শুধু নাম আর ব্যাচ সিনিয়রিটি বাদে পূরো ঘটনাই সত্যি)

১,২২১ বার দেখা হয়েছে

১৮ টি মন্তব্য : “গুঁড়ো দুধ!!!!”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আগে ১০টা ফ্রন্টরোল লাগাও, তারপর বাকি কথা :grr:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  2. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    ১০ টা না ২০ টা ফ্রন্ট রোল।
    ১০ টা নিয়মের জন্য।
    আর ১০ টা নাম বাংলায় না করার জন্য।

    সিনিওররা অনেক কিছুই রি ইউ নিয়নে বলে থাকে বা করে থাকে তার মূল কারন ছোট ভাইদের মজা দেয়া।
    সো ছোটভাইএরা বড় হলে বুঝবে যে সেটা মজা ছিলো।

    একবার ভাবো তো কোন মেয়ে ক্যাডেট যদি বিয়ে না করে আর জুনিওররা যদি তাকে জিজ্ঞাসা করে আপু বিয়ে করেননি ক্যানো আর সে যদি একই উত্তর দেয় উপরের সেই বড়ভাইএর মতো তখন ক্যামন শোনাবে!

    আমার কথা কি বুঝতে পারছো///


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  3. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    তোমারে একটা সত্যি কাহিনী বলি।

    আমার পরিচিত আত্মীয়ের এক্জনের ছেলের ঘরের নাতি হইছে।
    নাতির পুং জননাংগ ধরে দাদা গর্বিত ভংগিতে ছবি তুলে ড্রইং রুমে সাজিয়ে রেখেছে।
    কিছুদিন পরে তার আরেক ছেলের ঘরে নাতনি হলো।
    এবার সেই আত্মীয়টির বন্ধু স্থানীয় একজন বললেন, কি এইবার নাতনির সাথে তার জননাংগ ধরে ছবি তুলেন নাই...


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  4. আমিন(০০-০৬)

    :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: রাজীব ভাই ... অনেক আগেই দিতে বলছিলেন । লেট করে দেয়ার জন্য ১০ টা এক্সট্রা দিচ্ছি । (সম্পাদিত)


    Coming together is a beginning; keeping together is progress; working together is success..

    জবাব দিন
  5. আমিন(০০-০৬)

    মোস্তাফিজ ভাই ... দিচ্ছি :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll:
    আহসান ভাই , দিয়ে দিছি । অনেক আগেই বলছিলেন । লেট এর জন্য এক্সট্রা দিলাম 🙁 🙁 🙁


    Coming together is a beginning; keeping together is progress; working together is success..

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।