শীতের ফেলে রাখা কাজ গ্রীষ্মে…ক্যাডেট বলে কথা, আপডেট ৫।৬


আপডেটঃ ৫ তারিখ

সবাই এবার একটু সিরিয়াস হয়ে কমেন্টের বাক্সে নিজের নামটা জানান…আমরা খাওয়াদাওয়ার ফাইনাল হিসাবটা করে ফেলি 😀

স্থানঃ লাবলু ভাইয়ের রুফটপ

কিছু জানতে ফোন করুনঃ ০১৬৭৩৮৩১৫০৩ অথবা ০১১৯৬২৫৮৫৩৯ ( রায়হান আবীর, সে কৃতিত্বের সাথে তার ফোন হারিয়ে ফেলেছে, আপাতত এই নম্বরে)

ঠিকানাঃ বাসা নম্বর ৯, রোড s1, ব্লক এফ, ইস্টার্ণ হাউজিং, পল্লবী দুই, মিরপুর সাড়ে এগারো।

মানচিত্রঃ

টিপি দিলে ম্যাপ বড় হবে।

চাঁদাঃ
ছাত্র ১৫০
অপিসার ৩০০

১। জনাব লাবলু ওরফে প্রিন্সু ভাইস্যার
২। সামিয়া হোসেন (৯৯-০৫)
৩। রায়হান আবীর (৯৯-০৫)
৪।
৫। রায়েদ (২০০২-২০০৮)
৬।
৭। ফয়েজ ভাই ও পরিবার
৮। মাস্ফু ভাই
৯। ঝুনাদা…সরি জুনাদা
১০। রিবিন ভাই
১১।
১২। তানভীর ভাই (৯৪-০০) (না আসলে সিরিয়াস খবরাছে)
১৩। শার্লী
১৪। সামীউর ভাই
১৫। কামরুল হাসান ভাই (১৯৯৬-২০০২) ও ভাবী
১৬। শাওন ভাই (৯৫-০১)
১৭। রুম্মান ভাই (১৯৯৩-৯৯), ভাবী ও পোনা
১৮। মিফতাহ
১৯। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বড়ভাই
২০। উদয় এবং তার ব্যান্ডদল (কতোজনের জানি না)
২১। রাব্বী (২০০৫-২০১১)
২২। আশিক (২০০৭-২০১১)


আপডেটঃ ৩১ তারিখ

সবার মতামতের ভিত্তিতে পিকনিকের দিন হিসেবে আট তারিখ ধার্য করা হইল। 😀

গোপন খবরের ভিত্তিতে জানা গেছে সেদিন আম, জাম, তরমুজ, আনারস ইত্যাদি বিভিন্ন প্রকার গ্রীষ্মকালীন ফলমূল পেটপুরে খাওয়ার সুযোগ থাকবে। কিঞ্চিৎ গান বাজনার ব্যবস্থাও থাকবে। সুতরাং আপনারা যারা নিজেদের কন্ঠকে অমূল্য মনে করেন, তারা অবশ্যই অন্যদের পীড়াপ্রদানের লক্ষ্যে আটঘাট বেধে প্রস্তুত হয়ে নিন। বিশেষ করে লাবলু ভাইয়ে পুত্র একটি গীটার কিনেছেন, তার একক সংগীত সন্ধ্যার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
এবং, আমাদের অতি প্রিয় এক ক্যাডেট ছোটভাই, যে গানবাজনায় বিশেষ নামধাম কামিয়েছে, তাকেও আমন্ত্রণ করা হয়েছে। না আসলে তাকে বিশেষ নির্যাতন পূর্বক দেশছাড়া করা হবে। এবং আমাদের এক অতিপ্রিয় ক্যাডেট বড়ভাই, যে একইসঙ্গে সঙ্গীত শিল্পী এবং কমান্ডো, তাকেও ধরে বেধে আনার ব্যবস্থা চলছে।

কেউ মিস করলে আমি নিজদায়িত্বে তার বাসায় ডাকাতি করে আসবো।

…………………………………………………………………………………………………………………………………………
রাস্তায় এত জ্যাম আর ভালোলাগে না। প্রতিদিন কাজ শেষে ঘামে চ্যাপচ্যাপ করতে থাকা একগাদা হাত পা নিয়ে বাড়ি ফিরি। ইচ্ছে করে গাছের ছায়ায় ঢাকা একটা ফুটপাথ ধরে হাঁটতে হাঁটতে বাড়ি ফিরতে, মাঝে মাঝে কাঠবেড়ালিরা উঁকি দেবে, নিদেন পক্ষে কাক কিংবা চড়ুই। তাও যদি বুঝতে পেতাম যে যার জন্য এত জ্যাম পোহাচ্ছি তা কাজে লাগবে, তাহলে হয়ত আনন্দের সাথেই একদুবছর কষ্ট টষ্ট করতাম। কিন্তু জ্যামটা হচ্ছে হলো ফ্লাইওভারের জন্য, তাই খুব একটা খুশি লাগে না। শহরে নতুন কিছু হলে নাকি বুড়োরা তা মেনে নেয় না। দীর্ঘশ্বাস ফেলে ভাবি, আমি তাহলে কুড়ি(প্লাস পাঁচ 😉 ) এই বুড়িয়ে গেলাম? হাজার হোক বাঙ্গালী মেয়ে বলে কথা…

এত সকল মন খারাপ করা দুপুরের তালে পরে ঘুরছি সবাই। মনে বড় দুঃখ, শীতকাল চলে গেল আমাদের পিকনিক হল না। প্রিন্সিপাল স্যারের চৌদ্দ গুষ্ঠি উদ্ধারের অপারেশনে নামব ভাবতেই কোন এক অলস রাতে প্রিন্সিপাল স্যারের ফোন। গম্ভীর গলায় তিনি পিকনিক উদযাপনের ঘোষণা দেন। আমার অসহ্য দুপুর জুড়ে এই অলস রাতে হঠাৎ করেই যেন সাঁই সাঁই বাতাস বওয়া শুরু হল। সুতরাং সিসিবিবাসীগণ, আপনারা যার যা কিছু আছে নিয়ে তৈরী হয়ে যান, একটি সুস্বাদু পিকনিকের জন্য।

অনেক ভেবেচিন্তে পিকনিকের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে বিকেলবেলা। সমস্ত কাজকাম সেরে আপনারা বিকেলে আসবেন, গা এলিয়ে আড্ডা দিবেন, এবং সন্ধ্যায় লাবলুসের ছাদে মিষ্টি মধুর বাতাসে আমরা আড্ডা দিব। আপনাদের সকল সুযোগ সুবিধা দেখার দায়িত্বে আছি, আমি বেগম সামিয়া।

এবারে চটপট করে নামগুলো বলে যান, কারা কারা আসতে পারবেন, বা পারবেন না। তারিখ আগামী জুন মাসের এক বা আট তারিখ, শুক্রবার। যেই তারিখের ওপর সর্বোচ্চ ভোট উঠবে সেই তারিখেই আমরা পিকনিক উদযাপন করব।

৮,৭৬৪ বার দেখা হয়েছে

১৩২ টি মন্তব্য : “শীতের ফেলে রাখা কাজ গ্রীষ্মে…ক্যাডেট বলে কথা, আপডেট ৫।৬”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আগামী অক্টোবরের আগে সকল ধরনের পিকনিক/জি২জিকে না


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
      • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

        ভালা বুদ্ধি দিছ সামিয়া।
        গত দুইদিন সারা দুপুর-বিকাল দুই মেয়ে, বউরে নিয়া ঝা ঝা রৌদ্রে পার্কে বসে ছিলাম। বিশ্বাস করো একটুও ঘামি নাই।

        বাসায় আইসা আজ আলু ভর্তা বানাইয়া গরুর মাংস, ডাইল দিয়া ভাত খাইছি।

        যদি বাংলাদেশে এখন যাই তবে আমারে ভর্তা করতে পারবা (বাংলাদেশের গরমের কথা মনে হইতেই শরীর আংশিক সিদ্ধ সিদ্ধ লাগতেছে)।
        যাবো ইনশাল্লাহ। গেলে পরে আমার কিন্তু ডাবল খানা লাগবো, ওজন আমার ১০০ কেজি।


        এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

        জবাব দিন
  2. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    শোন মেয়ে পঁচিশ বছর বয়সটা মেয়েদের জন্য সবচেয়ে হতাশাজনক একটা সময় (নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলচেসি)। হতাশা কাটাতে আমি ধুম করে বিয়ে করে ফেলি (কারণ তবলীগে যাওয়ার উপায় ছিল না আর ড্রাগ নেওয়ারও সাহস ছিল না)। ধুম করে বললাম কারণ কেউ ভাবে নাই আমি এই কাজ করে ফেলবো। এখন পেছনে তাকিয়ে ভাবি কত বড় ঝুঁকি নিয়েছিলাম।

    পিকনিক করে আস। পারলে সুন্দরবণে যাও। তোমাদের আনন্দ দেখে আমরাও আনন্দিত হই।


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন
  3. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন পুলিশ জানাইছে ৮ তারিখ হলে সে থাকবে 😀

    আমি নিজেও ৮ তারিখের পক্ষে। প্রস্তুতি সভা ১ তারিখ হইতে পারে..... :grr: :grr: :grr:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  4. ইসলাম (১৯৯৬-২০০২)

    যত দিন দেশে ছিলাম ততদিন ভাইয়া-আপু দের গিয়ার ছিল না। এখন দেশের বাইরে আর সবাই মনে হয় ট্যাঙ্কই ফুল করে গেট টু গেদারের জন্য নামছে। বড়ই মিসাইলাম......। :bash: :bash: :bash: :chup: :chup:


    Islam, CCR (1996-2002)

    জবাব দিন
  5. তাওসীফ হামীম (০২-০৬)

    জীবনটা মিস করতে করতে গেল,পিকনিক মিস করি,এক্সরে মিস করি
    এর মধ্যে রাজিব ভাই আবার কয়
    'জীবনে সব প্রেমই গুরুত্বপুর্ন,আর কোন প্রেমই ভোলা যায় না"


    চাঁদ ও আকাশের মতো আমরাও মিশে গিয়েছিলাম সবুজ গহীন অরণ্যে।

    জবাব দিন
  6. কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

    গ্রীষ্ম, খানাপিনা ও উদারময়ের সম্পর্ক কি সবাই ভূলে গেল নাকি??!


    যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
    জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
    - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

    জবাব দিন
  7. সামীউর (৯৭-০৩)
    আপনাদের সকল সুযোগ সুবিধা দেখার দায়িত্বে আছি, আমি বেগম সামিয়া।

    বেগম সামিয়া, মেনুটা একটু কইবা? আমি আবার একদমই নিরামিষভোজী না, মানে শুধু ফলমূল খাইয়া এই স্বাস্থ্য টিকায় রাখতে পারুম না!

    জবাব দিন
      • আরে আমার নাম দেখি যোগ কইরা দিলা।আমার আসা, ছুটি পাওয়ার উপর নির্ভর করতেছে। আমাদের আবার সাপ্তাহিক বন্ধের দিন রবিবার। শুক্রবারে অপিস খোলা থাকে। শুক্রবারে আবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পরীক্ষা। দেয়ার ইচ্ছা আছে, যদি দিতে পারি, তাইলে আসা হবে। নচেৎ নয়।

        জবাব দিন
  8. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আয়োজনের সফলতা কামনা করছি, সেই সাথে পিকনিক পরবর্তী অডিও, ভিডিও ইত্যাদি ইত্যাদি ব্লগের অপেক্ষায় থাকবো, লাইভ ব্লগিং থাকলেও খারাপ হয় না।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  9. রাব্বী আহমেদ (২০০৫-২০১১)

    আসবো ইনশাল্লাহ। আমার পাওয়া সিসিবির প্রথম পিকনিক। সামিয়াপু আসতেছি. . . .:)


    নিচের ঠোঁট কামড়ে ধরে কাঁদতে নেই
    খুব সহযে বিশ্বাসে বুক বাঁধছ কেন, বাঁধতে নেই
    বুকের কিছু গভীর কান্না চোখের মাঝে আনতে নেই
    কিছু অতীত স্মৃতির কথা জানার চেষ্টা বৃথাই, জানতে নেই...

    জবাব দিন
  10. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    আপডেট:

    পিকনিকে আরো যারা যোগ দিচ্ছে
    ১. মিফতাহ
    ২. নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বড়ভাই
    ৩. মারজুকা
    ৪. উদয় এবং তার ব্যান্ডদল (কতোজনের জানি না)
    ৫. পরিবারসহ ফয়েজ
    ৬. জাস্ট ফ্রেন্ডসহ মাস্ফ্যু
    ৭. বিশেষ বন্ধুসহ কামরুল


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  11. রুম্মান (১৯৯৩-৯৯)

    আসতে চাই (বউ এবং পোনা সহ)। বাকী আল্লাহর ইচ্ছা ।


    আমার কি সমস্ত কিছুই হলো ভুল
    ভুল কথা, ভুল সম্মোধন
    ভুল পথ, ভুল বাড়ি, ভুল ঘোরাফেরা
    সারাটা জীবন ভুল চিঠি লেখা হলো শুধু,
    ভুল দরজায় হলো ব্যর্থ করাঘাত
    আমার কেবল হলো সমস্ত জীবন শুধু ভুল বই পড়া ।

    জবাব দিন
  12. শাওন (৯৫-০১)

    যেহেতু খাওয়া দাওয়ার ব্যাপার, কোন সম্ভাবনাই নাই মিস করার। আমি স্পীড খেয়ে আসতেছি...... 😉


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন
  13. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    ক্যাম্মে কি আমি ১০ তারিখ দেশে আমু :(( :(( :((


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  14. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    মহান সিসিবি সদস্যরা হাতে আর ২৪ ঘণ্টাও সময়ও নেই। স্বামী-স্ত্রী, বাচ্চা-কাচ্চা নিয়ে সামার পিকনিকে সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি। বাসায় হালকা খাওয়া-দাওয়া করে বিকাল ৩ থেকে ৪টার মধ্যে পল্লবী-২-এ চলে আসুন। আম, কাঠাল, আনারস, তরমুজসহ মৌসুমি ফলের সমাহার থাকছে। রাতে থাকছে ডিনার। মাঝখানে আড্ডা-গান, হা হা হি হি সবই চলবে। আমরা তৈরি, আপনি তৈরি তো??


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  15. ড. রমিত আজাদ (৮২-৮৮)

    বেশ ভালো আয়োজন। আজ পিকনিক, তাইনা? আসার খুব ইচ্ছে ছিল, কিন্তূ ব্যস্ততার কারণে আসতে পারলাম না। পরেরবারের পিকনিকের অপেক্ষায় থাকব। সবার জন্য শুভ কামনা রইল। (সম্পাদিত)

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।