“ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন চেকার” নামক একটা অ্যাপ বিষয়ে কিছু উপকারী প্যাচাল

VAT শব্দটা প্রথম জানতে পাই ক্লাস সিক্সে সাধারণ জ্ঞান বইয়ের এব্রিভিয়েশন সেকশনে। ভ্যালু এডেড ট্যাক্স। কাঠখোট্টা টাইপের জিনিস। তো কথা হলো সিসিবিতে এখন এই ভ্যাট নিয়ে হুট করে লেখার কি দরকার পড়লো? কারন আছে.. ভ্যাট এমনিতেই বেশ হট টপিক ছিল গতমাসে। স্পেশালি শিক্ষাখাতে ভ্যাট যোগ করা নিয়ে অনেক আন্দোলন হয়ে গেল। তবে এই পোস্ট এর ফোকাসটা একটু অন্য জায়গায়। সাম্প্রতিক সময়ে আরো কিছু ব্যাপার আমাদের গোচরে আসছে। সেটা হলো বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে, দোকানে, বা অন্য কোনো বিজনেস আউটলেট এর ভ্যাট জালিয়াতি। কোনো কিছু কেনার পর আপনাকে যখন বিল ধরিয়ে দেওয়া হয়, সেইটা কি ভালো মতন খেয়াল করে দেখেছেন? সেখানে কিন্তু সবসময় এই ভ্যাট এর একটা সেকশন থাকে। একটু খোঁজ নিয়ে দেখেছেন কি এই ভ্যাট আসলে কোথায় যাচ্ছে?
এইবার একটু পেছনের আলাপ করি।বাংলাদেশে প্রথম ভ্যাট চালু হয় ১৯৯১ সালে The Value Added Tax Act, 1991 এর মাধ্যমে। তো গত ২৪ বছরের মাধ্যমে এই ভ্যাট বলতে গেলে সরকারের সবচেয়ে বড় রাজস্ব খাতের সোর্স হিসেবে পরিণত হয়েছে। সরকারের মোট আয়ের ৫৬% আসে এই ভ্যাট থেকে।ভ্যাট ব্যবসায়ীরা দেন না, দেই আমরা সাধারণ মানুষেরা। সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ীরা এই কর আদায় করে তাদের কাছে টেম্পোরারিলি রাখে। আলটিমেটলি এই টাকা কিন্তু সরকারের। এই টাকা রিলেটেড কোনো কোনো প্রকার গড়িমসি বা ডানবাম কে ডিরেক্টলি আমানতের খেয়ানত বলা যেতে পারে।আইনগতভাবে এই কাজ করা অপরাধ জেনেও প্রচুর সংখ্যক অসাধু ব্যবসায়ী এই অপরাধ করেই যাচ্ছেন। অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আমাদের দেওয়া এই ভ্যাট সরকারকে না দিয়ে নিজেরা আত্মসাত করে গাড়ি,বাড়ি থেকে শুরু করে আরো ১০/১২ টা শাখা পর্যন্ত খুলে ফেলেছেন। আমাদের কষ্টের উপার্জিত টাকা দিয়ে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই নিজেদের আখের গোছাচ্ছে। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আমার এই জিনিসটা যে হচ্ছে সেটাই ধরতে পারিনা। এখন আপনারা বুঝবেন কি করে যে কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সরকারকে তাদের পাওনা বুঝিয়ে দিচ্ছে আর কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আপনাদের দেওয়া ভ্যাট আত্মসাত করে লুটে-পুটে খাচ্ছে।
অনেক লম্বা ভূমিকা হয়ে গেছে। এইবার আসল কথায় আসি। এই ভ্যাট জালিয়াতি ধরার উদ্দেশ্যে একটা এপ্লিকেশন তৈরি করা হয়েছে। অ্যাপটার নাম ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন চেকার। অ্যাপ নিয়ে ডিটেইলস কিছু বলার আগে আরেকটা ব্যাপার জেনে রাখা দরকার।এই কোন প্রতিষ্ঠান যাতে ভ্যাট জালিয়াতি করতে না পারে এই জন্য সরকার ইসিআর মেশিন জেনারেটেড বিল প্রদান বাধ্যতামূলক করেছে।একটি সঠিক ইসিআর জেনারেটেড ভ্যাট চালানে তিনটি তথ্য অবশ্যই থাকবে;

১. ব্যবসায়ীর ১১ ডিজিটবিশিষ্ট ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর (১০ ডিজিট হলে বুঝে নিবেন এটি ভুয়া);

২. চালানপত্র এর সিরিয়াল নম্বর, তারিখ, সময়( সিরিয়াল নম্বর না থাকার মানে দিনশেষে এই চালানের তথ্য মুছে ফেলা হবে);

৩. সরকার নির্ধারিত হারে ভ্যাটের পরিমাণ। এছাড়া ইসিআর মেশিনের নম্বরও থাকার কথা।

জাস্ট টু ক্ল্যারিফাই, ইসিআর জেনারেটেড বা ইলেকট্রনাক্যালি প্রিন্টেড যে বিল আমরা গ্রহণ করে থাকি সেটাতে উল্লেখিত বৈশিষ্ট্যগুলো থাকলেই সেটাকে ভ্যাট চালান বলা যাবে।যদি আনরেজিস্টার্ড প্রতিষ্ঠান এইভাবে জালিয়াতি করে বা ভ্যাট চালান দিতে অস্বীকৃতি জানায় তখনই আসবে এই অ্যাপ এর ব্যবহার। এই ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন চেকার অ্যাপ এর কাজ হলো ভূয়া রেজিস্ট্রেশন নাম্বার ধারী প্রতিষ্ঠান খুঁজে বের করা..অ্যাপ এর সার্চ বক্সে দোকানের ভ্যাট রেজি. নম্বর লিখে সার্চ বাটনে চাপ দিতে হবে। BIN(business identification number) নম্বর আর ভ্যাট রেজি: নম্বর একই জিনিস। ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর আসল হলে পরের ডায়ালগ বক্সেই প্রতিষ্ঠানের নাম এবং ঠিকানা দেখতে পাবেন। আর আনরেজিস্টার্ড হলে no result found লেখা দেখাবে। আর আনরেজিস্টার্ড প্রতিষ্ঠানের ভ্যাট নেওয়ার কোনো এখতিয়ার নেই। অ্যাপটি সরাসরি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ওয়েবসাইট www.nbr.gov.bd এর ডাটাবেস থেকে তথ্য সংগ্রহ করে। সরকারি ডাটাবেজ যদি আপডেটেড থাকে তাহলে অ্যাপটিও সঠিক রেজাল্ট দেবে।আশার কথা হলো এই ডেটাবেজ বেশ ভালোই আপডেটেড। এই দিক থেকে অ্যাপটি শতভাগ নির্ভরযোগ্য। যদি একটি আনরেজিস্টার্ড প্রতিসষ্ঠান এইভাবে জালিয়াতি করার চেষ্টা করে তাহলে আপনি সংশ্লিষ্ট মূসক কমিশনারেটের বরাবর সহজেই অভিযোগ করতে পারবেন VAT registration checker অ্যাপটির মাধ্যমেই। no result found লেখা বক্সের নিচে complain লেখা আছে। এখানে চাপ দিলেই আপনি অভিযোগ করার দুটি অপশন পাবেন। ই-মেইলের মাধ্যমে অভিযোগ করার জন্য প্রথমে আপনি সংশ্লিষ্ট মূসক কমিশনারেট বাছাই করুন ভ্যাট রেজি. নাম্বারের প্রথম দুই ডিজিট দিয়ে। তারপর প্রতিষ্ঠানের নাম,ঠিকানা আর অভিযোগের বিবরণ লিখে ইমেইল অপশনে চলে যান। আপনি চাইলে ছবিও সংযুক্ত করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে আপনি গ্যালারি থেকে বা ক্যামেরা দিয়ে তুলে সর্বোচ্চ ৫টি ছবি সংযুক্ত করতে পারবেন। এছাড়া Customs, Excise & VAT Commissionerate, Dhaka – North এর ফেসবুক পেজেও অভিযোগ জানানোর অপশন আছে অ্যাপ থেকে। 

ওহ, অ্যাপ এর ডাউনলোড লিংক হলো এই লিংক । IoS ও উইন্ডোজ ডিভাইস এর জন্য ডেভেলপ করার কাজ চলছে। হোপফুলি খুব শীঘ্রই ঐটাও চলে আসবে। স্যাম্পল হিসেবে বেশ কিছু রিসিপ্ট এর ছবি দিয়ে দিলাম এখানে। এই রিসিপ্ট গুলোতে কোনো ধরণের রেজিস্ট্রেশন নাম্বারই নেই!

 

richman occult handi

এইবার এই রিসিপ্ট গুলো খেয়াল করে দেখুন। এদের কিন্তু রেজিস্ট্রেশন নাম্বার আছে, কিন্তু সমস্যা হলো এগুলো ভূয়া।

agora (2) cineplex korai gosto modern diagonatic

রেজিস্ট্রেশন ভূয়া হলে অ্যাপ এ নিচের ছবির মতন একটা আউটপুট দেখাবে।

almas BC (2)

নিচের রিসিপ্ট গুলো অবশ্য ঠিক আছে। এগুলো লিগাল।

trust family needs sqaure cafe yellow

ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন ঠিক থাকলে অ্যাপ এ নিচের স্ক্রিনশট এর মতন আউটপুট দেখতে পাবেন।

VAT_REG_CHECKER_1446053207901

অ্যাপ এর গুগল প্লে লিঙ্কে গেলেই দেখতে পারবেন সেখানে ডিটেইলস আরো অনেক কিছু লেখা আছে।সেইসাথে কোনো অন্য কোনো প্রশ্ন বা কিউরিসিটি থাকলে Frequently Asked Question টা দেখতে পারেন। বেশির ভাগ প্রশ্নের উত্তরই সেখানে পাবেন। এছাড়াও ডিরেক্টলি অ্যাপের ফেসবুক পেজে মেসেজ করতে পারেন। আশা করি ডেভেলপাররা রিপ্লাই দিবেন। এই ভ্যাট জালিয়াতি নিয়ে ফেসবুকে কিছু গ্রুপে অনেকগুলো পোস্ট করা হয়েছে। এইরকম কয়েকটা পোস্ট এর লিংকও নিচে দিয়ে রাখলাম। আগ্রহী হলে ঢু মেরে দেখতে পারেন।

কড়াই-গোশত

আমেরিকান বার্গার  

Carrefamily 

রিচম্যান 

দোসা হাউজ 

এছাড়া এই টপিকের উপর কাস্টমস ফেসবুক পেজ এর বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফেসবুক পোস্ট এর লিংক দিয়ে দিচ্ছি এখানে  : পোস্ট ১ , পোস্ট ২ , পোস্ট ৩  

সো , TL;DR  হলো এই ভ্যাট বিষয়ে আমাদের একটু চিন্তা ভাবনা করা উচিত। আরো সচেতন হওয়া উচিত। এইরকম ন্যাক্কারজনক জালিয়াতি বন্ধ করার জন্য এই এপ্লিকেশনটা আমার মতে খুবই ইউজফুল একটা টুল.. অ্যাপ এর ডেভেলপার দুইজনই বুয়েটের সিএসই ডিপার্টমেন্ট এর শেষ বর্ষে আছেন। এই রকম ইনোভেটিভ একটা জিনিসের পেছনে যে পরিমান ইফোর্ট তারা দিচ্ছেন তাতে মনে হলো এখানে কিছু একটা লিখে অন্তত আমার সাইড থেকে একটু কন্ট্রিবিউট করি.. অ্যাপটা আপনার স্মার্টফোনে ইনস্টল করে নিন। আশেপাশের সচেতন মানুষদের জানান। দরকার মনে হলে এই পোস্টটা শেয়ার করতে পারেন অথবা এটলিস্ট অ্যাপ এর ডাউনলোড লিংক টা সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে কথা গুলো ছড়িয়ে দিতে পারেন .. দিনশেষে দেশটা টা তো আমাদেরই। তো চলুক ভ্যাট জালিয়াতির বিরুদ্ধে এই যুদ্ধ।

12202300_10206811963170123_1819172179_n

 

 

 

 

 

২,৫১৩ বার দেখা হয়েছে

১০ টি মন্তব্য : ““ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন চেকার” নামক একটা অ্যাপ বিষয়ে কিছু উপকারী প্যাচাল”

  1. মোকাব্বির (৯৮-০৪)

    "ভ্যাট নিমু কিন্তু জমা দিমু না"--এই ব্যাপারটারে সামাজিক, ব্যবসায়িক ও রাজনৈতিক অধিকার মনে করে ব্যবসায়ীরা। সেখান থেকে আমি বলবো অবস্থার অনেক উত্তরণ হয়েছে। একই সাথে পাবলিকের, "ধুর বা* এত কষ্ট কে করে? খাইসি-দাইসি, সেলফি তুলসি, চেক-ইন দিসি, সবাই লাইক দিসে শেষ" এই পরিস্থিতিও ধীরে ধীরে পরিবর্তিত হচ্ছে। দীপ ও তার বন্ধুকে অভিনন্দন। বাঙলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই কাজগুলো অনেকটা ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর মত। এদের কারণেই হয়তো হতাশার মাঝে একটু ভিন্ন ধারায় চিন্তা করি।


    \\\তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা
    অবুঝ শিশু হামাগুড়ি দিল পিতামাতার লাশের ওপর।\\\

    জবাব দিন
    • নাফিস (২০০৪-১০)

      ভালো একটা ট্রেন্ড স্টার্ট করতে পারলে মানুষ জন রিলাকটেন্টলি ফলো করে.. ব্যাপারটার নেগেটিভ-পজেটিভ দুইটা সাইডই আছে। এই টপিকে কিছুই জানতাম না.. দীপ এর এই এপ এর উছিলাতে কিছু জিনিস জানা গেল। খারাপ না B-)

      জবাব দিন
      • মোকাব্বির (৯৮-০৪)

        এছাড়া আরেকটা জিনিস মনে হয়, দেশে রুল অফ ল, পাবলিক ডিসকমফোর্ট-বিশেষ করে কনজ্যুমার লেভেলে ডিসকমফোর্ট অনেক বেশী। তাই চিপা দিয়া ধরার চান্স পাওয়ার পরে মানুষজন প্রয়োজনের চাইতে বেশী আগ্রহী হইতেসে। হাইপোথেটিকালি, মনে করো আগামীকাল এমন এ্যাপ বানানো হইলো যেইটা এ্যাপ দিয়াই ফরমালিন, কার্বাইডের মাত্রা নির্ণয় করতে পারবেঃ কি যে হবে আর কোন স্কেলে হবে এইটা চিন্তা করেই মজা পাচ্ছি! 😀


        \\\তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা
        অবুঝ শিশু হামাগুড়ি দিল পিতামাতার লাশের ওপর।\\\

        জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : মোকাব্বির (১৯৯৮-২০০৪)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।