গ্রামে পাঠাগার প্রতিষ্ঠা

গ্রামে (কুমিল্লার চান্দিনায় ) একটি গণপাঠাগার প্রতিষ্ঠা করতে মনস্থির করেছি । এই উদ্যোগ সফল করে তুলতে আপনারা যারা বই দিয়ে সাহায্য করতে পারেন অনুগ্রহ করে আমাকে ব্যক্তিগত ভাবে  জানাবেন। যে সব বই আমাদের মনের সংকীর্ণতা দূর করে আমাদেরকে পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে ,ইহলৌকিক মঙ্গল ও পারলৌকিক মুক্তির পথ দেখিয়ে সুন্দর সমাজ গঠনে সহায়তা করবে তার একটি চমৎকার সংগ্রহ গড়ে তুলতে চাই। আপনাদের ব্যক্তিগত সংগ্রহে থাকা (বাংলা কিংবা ইংরেজী ) অসংখ্য বই থেকে গুটি কতেক ঐ পাঠাগারকে  দিতে চান? যা একটি নিভৃত পল্লীতে মানবিক বোধ সম্পন্ন শিক্ষিত জনগোষ্ঠী গঠনে অমূল্য অবদান রাখবে যুগের পর যুগ- যেখানে মানুষ এখনো একাডেমিক শিক্ষার বাইরে কোন বই পড়ার সুযোগ পায় না । আমাকে ছোটবেলায় বই ধার করে এনে পড়তে ক্যাডেট কলেজ বন্ধুদের বাসায় কলেজ ছুটি কালীন সময় প্রতি সপ্তাহে গ্রামের বাড়ি থেকে জেলা শহরে যেতে হয়েছে আর শৈশব থেকেই এই সুযোগ না পাবার আফসোসে পুড়তে হয়েছে । ঐ জনপদে এখন যারা শিশু কিশোর তরুণ তাদের প্রয়োজন অনুভব করেই আমার এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। কারণ আমি প্রতি পদে পদে উপলব্ধি করছি আমাদের মানবিক বোধসম্পন্ন শিক্ষিত এবং নিজের বিবেক দ্বারা চালিত মানুষ দিন দিন আশংকাজনক হারে হ্রাস পাচ্ছে- ফলশ্রুতিতে আত্মসর্বস্ব জীবন যাপন আমাদের চিন্তা ভাবনাকে গ্রাস করে ফেলছে। দেখুন না বাসায় পুরনো আলমারি ,শেলফ বা শো কেসে এরকম কোন মহামূল্যবান বই অনাদরে ঘুমিয়ে আছে কি না যা একটি নিভৃত পল্লীতে সমাজ পরিবর্তনের মহৌষধ হতে পারে। চাইলে নতুন কিনে দিতে পারেন, অর্থ ও দিতে পারেন যা দিয়ে বই কেনা যেতে পারে । বিশেষ করে যারা প্রবাসে স্থায়ীভাবে থিতু হয়ে গেছেন তাদের জন্য এটি হতে পারে জন্মভূমিকে সেবা করার সহজ একটি উপায়।আপনি পৃথিবীর যে প্রান্তে থাকুন না কেন আপনি যদি বলে দেন বাংলাদেশের কোন ঠিকানা এবং কার সাথে যোগাযোগ করতে হবে আপনার বইগুলো সংগ্রহ করে আনতে তাহলে আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করবো তা সংগ্রহ করতে । চাইলে আপনাদের পরিচিত সার্কেলে লেখা শেয়ার দিয়ে ও আমার এই উদ্যোগকে সহজ করে তুলতে পারেন। rafiq.lipu@gmail.com

৪৪৩ বার দেখা হয়েছে

৯ টি মন্তব্য : “গ্রামে পাঠাগার প্রতিষ্ঠা”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    সিসিবিতে স্বাগতম রফিক ভাই, দারুন উদ্যোগ। আশা করি শীঘ্রই সফলতা পাবেন।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : মোস্তাফিজ (১৯৮৩-১৯৮৯)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।