মিষ্টিমুখর বউ…

ঘ্যানঘ্যানানী প্যানপ্যানানী
খ্যাচর ম্যাচর নয়,
বিনামেঘে বজ্রপাত?
আর প্রাণে না সয়।

মলিন-মুখো হও কেনো গো?
কারণ-অকারণে,
রও সদাহাস্য শান্তিমুখর,
ঢালো মিষ্টি মধু কানে।

“নানান ফুলের মালা হয়ে
স্বামীর ঘরের শোভা?”
চাই না সেতো তোমার কাছে
যার সবই ক্ষণপ্রভা!

আবার বিকেল হলেই
চপ সিঙ্গারা ভেজে বসে থাকা?
চাইনা সেটাও তোমার কাছে
করছি যেসব আধা।

ঝলক মারা দমকা হাওয়া
হও শুধু গো তুমি,
বয়ে যাও আর ছুঁয়ে যাও
এই শুষ্ক চিলতে ভূমি।

‘কেতকী রায়’ চাইনা আমি
‘লাবণ্য’তেই স্নান,
ডোবা-পুকুর যেমনি করে
দীঘির কাছেই ম্লান।

তোমার কোমল পরশ পেলে
হৃদয় ওঠে নাচি,
যে কটা দিন জীবন বাকী
এসো, পেখম মেলে বাঁচি।

জানি, হেঁটে হেঁটে পৌঁছে যাবো
একদিন তার খোঁজে,
অনন্ততে বাস করে যে
হৃপিন্ডটাকেও বোঝে।

৫৮৫ বার দেখা হয়েছে

৭ টি মন্তব্য : “মিষ্টিমুখর বউ…”

  1. পারভেজ (৭৮-৮৪)

    "অনন্ততে বাস করে যে" - হঠাৎ বর্ষার চেহারা ভেসে উঠলো। 😛 😛 😛
    জোক এপার্ট, ভাল লেগেছে।
    সুখপাঠ্য, সেটাই বড় কথা।
    চালিয়ে যাও...


    Do not argue with an idiot they drag you down to their level and beat you with experience.

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : মোস্তাফিজ (১৯৮৩-১৯৮৯)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।