স্রষ্টার আজাব: রজনীর ঘুম ঘোরের আজব ভাবনা

6a00d8341bf7f753ef01538fb4c4ff970b
জানেন নাকি, আমরা আগে একত্রে ছিলাম।
পৃথিবীতে কেবল একটি মাত্র মহাদেশ ছিল, প্যানজিয়া
না, কোন ধর্মীয় গ্রন্থের কথা নয়,
আমি টেক্টোনিক প্লেটের কথা বলছি
স্রষ্টা আমাদের কিভাবে আজাব দেন তার কথা বলছি

সেই একক মহাদেশটিতে প্রধান আটটি প্লেটের খন্ডন ছিল
ছিল আরো ছোট ছোট অনেক অপ্রধান প্লেট
পৃথিবীর অভ্যন্তরে গলিত তরল ধাতুর প্রবাহের কারনে
প্লেটগুলো পরস্পরকে ঠেলে দিচ্ছে
দক্ষিন থেকে উত্তরের দিকে ধীরে ধীরে সরে যাচ্ছে তারা

ফলে সৃষ্টি হয়েছে মহাসাগর, মহাদেশ, পাহাড়, পর্বত
আমরাও আলাদা হয়ে গেছি
আমাদের গঠন, আচরণ আলাদা হয়ে গেছে
আমাদের ধর্মসত্তা, জাতিসত্তা আজ আলাদা

আজ যে ভূমিকম্প হয়, স্রষ্টা আমাদের পাপকর্মের আজাব দেন
আমরা ভয়ে দিকবিদিক ছুটাছুটি করি
তার মূলকারণ আর কিছু নয়
এই প্লেটগুলো পরস্পরকে ধাক্কাদিয়ে নড়ে উঠে
কেঁপে উঠে পুরো প্লেট, কেঁপে উঠে পুরো অভিশপ্ত সমাজ
বাদ যায়না কোন ধর্মপ্রান।

জানেন, এই প্লেট গুলো আবারো উত্তরে গিয়ে একত্র হবে
আবারো হবে কেবল মাত্র একটি মহাদেশ
ততদিনে যদি বিলুপ্ত না হয় মানব প্রজাতি
হয়ত তাদের হাজার ধর্ম একত্র হয়ে হবে এক
একত্র হবে মানব সমাজ, স্থির হবে ধরণী
থাকবে না কোন ঠেলাঠেলি, আর থাকবে না কোন কলহ
স্রষ্টার আজাব থেকে মুক্তি পাবে সবাই

৩,৮২৫ বার দেখা হয়েছে

২ টি মন্তব্য : “স্রষ্টার আজাব: রজনীর ঘুম ঘোরের আজব ভাবনা”

  1. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    ওল্ড টেষ্টার ঈশ্বর তো রাগ করে আমাদের ভাষা ভিন্ন করে দিলেন।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।