পুরানো সেই দিনের কথা…………

দীর্ঘ ১ বছর পর আজ কলেজে গেলাম। যাওয়ার সময় ১টা ব্যপার খেয়াল করলাম। কেমন যেন মন খারাপ লাগছে। বরিশালে ১ relative এর বাসায় উঠছিলাম। ওখান থেকে যাওয়ার পথে কেন যেন খুব কান্না পাচ্ছিল।
মনে পড়ল আগেও আমি কলেজে যাওয়ার সময় মন খারাপ করতাম।এখন ও মনে আছে junior ক্লাসে যখন ছিলাম bus এ করে যখন কলেজে যেতাম, যাওয়ার পথে খালি ভাবতাম, কেন cadet হলাম।কি দরকার ছিল…………ইস! কলেজ টা যদি ভেঙ্গে পরত……কী মজাই না হত………………… :'(
আজকে যাওয়ার সময় ও মন খারাপ ছিল।তবে ঠিক ভিন্ন কারনে। আজকে আমি ভাবতেছিলাম কেন আমি এখন cadet হিসেবে কলেজে যেতে পারতেছিনা………… :'(………………..মানুষ বড় ই অদ্ভুত প্রানী।ক্ষনে ক্ষনে সে বদলায়। “রক্তাক্ত প্রান্তর” এর একটি লাইন খুব মনে পরতেছে, মানুষ মরে গেলে পচে যায়।বেচে থাকলে বদলায়।
কলেজ এ ঢুকতেই কিছুটা আবেগতারিত হয়ে গেলাম। সেই পরিচিত মাঠ।পরিচিত accadamic block.শুধু অপিরিচিত আমি নিজে।আগে যেখানে খাকি dress পরে অথবে games dress or dinner dress এ ঘুরতাম সেখানে আমি আজ civil dress এ হাটছি। তবে চোখের সামনে ভেসে আসতে থাকে সেই পুরানো দিনগুলোর কথা।
প্রতিদিন সকালে হক ভাইর চিল্লাপাল্লায় ঘুম ভাঙত। সুন্দর কোনো সপ্ন দেখছিলাম।তখন হক ভাইর ডাক শুনে উনাকে যে কত কথাই না বলতাম। কিন্তু আজকে ভাবি, কেউ সেই হক ভাইর মত ডাকেনা। versity র ৮টায় ক্লাস।৮টায় ই উঠি। ১ দিন ও break fast করা হয়না। কিন্তু সে সময় house বেয়ারাদের বদৌলতে অন্তত break fast টা করা হত। যে accadamic ভবন টা দেখছি, সেখানে ৬ টা বছর ক্লাস করলাম। এখন ও মনে পরে ক্লাস র মাঝে toilet এ গিয়ে আড্ডা দেয়ার কথা। prep time এ পড়ার দৃপ্ত প্রত্তয় নিয়ে গিয়ে গপ্প করা।ক্লাস ৭ ৮ এ থাকতে মনোযোগী ছাত্রের মত বই র ফাকে গল্পের বই লুকিয়ে পড়া। পেছনের দিকে বসতাম। ওখানে ১টা zone র মত হইছল। সেই zone ভাঙ্গার জন্যে sir নানা প্রকারের নীল নকশা স্থাপন করত। সেই নীল নকশা বানচাল করার জন্যে আমরা কয়জন মিলে যে planning করছিলাম, আমি sure বিরোধী দল ও বোধ হয় সরকার খেদাতে এমন planning করেনা।
এখন ও মনে পড়ে সেই games time র কথা।খুব বেশি ভদ্র ছিলাম ত তাই আর কী অনেক ed খাইতাম।খুব common cause ছিল shave না করা।staff রা alltime আমাকে এই cause এ ধরত।এখন আমার দাড়ি free style এ বারতেছে।কেউ র shave করার জন্যে ধরেনা। staff নাম note করবে বলে আর দৌড় দেইনা। dining hall এর বেয়ারাদের চিৎকার করে ডাকিনা।সেই মাছ ভরতা আর বানিয়ে খাওয়া হয়না। সবাই মিলে ১সাথে common room এ movie দেখিনা। এখন আমি অনেক movie দেখি। কিন্তু সেই taste আমি আর পাইনা। 🙁
সেই দিন গুলো আজ যেন কোথায় হারিয়ে গেছে। যে মানুষ গুলোকে প্রতিদিন দেখতাম  তাদের সাথে আজ কতদিন হল দেখা নাই। এমন ও কিছু friend আছে জার সাথে last দেখা হইছে college থেকে বের হওয়ার দিন।যে জানালা দেখে প্রতিদিন আমার ঘুম ভাঙত আজ কতদিন সে জানাল দেখিনা।সব কিছু আজ কোথায় যেন হারিয়ে গেছে।
অনেক কিছুই লিখতে ইচ্ছে করতেছে।কিন্তু চোখের কনে পানি চলে আসে।স্মৃতির পাতা যখন উলটাই সে পানি আর ধরে রাখতে পারিনা।প্রকৃতির বিদায়ের ধারায় পড়ে ১দিন হয়ত versity থেকেও বের হয়ে যাব। তখন হয়ত versity টাকেও এভাবে miss করব।যাই হোক, আমি মাঝে মাঝে বলতাম, কেন আমি cadet হলাম? cadet হওয়ার কি আদৌ কোন দরকার ছিল? জানিনা এই ques র ans কী দিব।তবে ১টা কথা আমি মনে প্রানে believe করি যে আমি যে life কাটিয়ে আসছি সে life টা আমি কোথাও পাবনা। যদিও সে life ফিরে পাওয়া সম্ভব না…………তবে আমার মাঝে সে স্মৃতিগুলো চিরজীবন বেচে থাকবে। একটি গান দিয়ে শেষ করব-
“পুরানো সেই দিনের কথা                      ভুলবি কিরে হায় ও সে                     চোখের দেখা প্রানের কথা                      সে কি ভোলা যায়।”

৯ টি মন্তব্য : “পুরানো সেই দিনের কথা…………”

  1. মীম (২০০৬-২০১১)

    মানুষ বেঁচে থাকলে বদলাবেই...তবে সময়ের সাথে কিছু অনুভূতি হয়তো আরও প্রগাঢ় হয়......না হলে তুই এই ব্লগ কিভাবে লিখতি....????
    :thumbup: :thumbup: :thumbup: ভালো ছিল দোস্ত...... :hatsoff:

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : মুহিব্বুল (১৯৯৬-২০০২)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।