আবারো আবাহনীর কাছে ধরা মোহামেডান…

কোটি টাকার সুপার কাপ চালু থাকলেও আজকের দেশের ক্রীড়াঙ্গনের মূল আকর্ষন ছিল প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে আবাহনী মোহামেডানের লড়াই। এ ম্যাচের আগে আবাহনী ৯ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ছিল আর মোহামেডান ধুকছিল ৯ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে, তাই ম্যাচ শুরুর আগে আবাহনীই ফেভারিট হবার কথা ছিল। কিন্তু বিভিন্ন ধরনের ইঞ্জুরির কারনে আবাহনীর ১১ জন খেলোয়ার মাঠে নামানোই কষ্টকর হয়ে যায়। অবস্থা এতোই খারাপ ছিল যে আবাহনীর অধিনায়ক ও দেশের ১ নং পেসার মাসরাফি পিঠের ইঞ্জুরি নিয়েও অফ স্পিনার হিসেবে ম্যাচ খেলেন, এছাড়াও জন্ডিস নিয়ে খেলতে নামেন ইমরান আহমেদ।কিন্তু এরকম ভঙ্গুর এক আবাহনীকে পেয়েও মোহামেডান সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি। তারা হেরেছে ৫ উইকেটের ব্যবধানে :awesome: :awesome: :awesome:
প্রথমে ব্যাট করে মোহামেডান ১৯৮ করে অল আউট হয়ে যায়, অফস্পিনার মাশরাফি ১০ ওভার বল করে ২ উইকেট নেয় ৩৫ রানের বিনিময়ে, যার মধ্যে রয়েছে সনাৎ জয়সুরিয়ার উইকেট। জয়সুরিয়া আউট হয় ৪২ রানে। ৩ ম্যাচে জয়সুরিয়ার মোট রান ৫২। ( বেচারা মোহামেডানে খেইলা নিজের ইজ্জত, ফর্ম সবই খুয়াইবে মনে হয় :grr: )। আবাহনী ৭ বল বাকি রেখে ৫ উইকেটে জয়ের লক্ষে পৌছে যায়। ১০ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে আবাহনী, আর ১০ ম্যাচে ১১ পয়েণ্ট পাওয়া মোহামেডানকে সুপার লীগে খেলতে হলে গ্রুপ পর্বের শেষ খেলায় আশরাফুলের গাজী ট্যাঙ্ককে হারাতেই হবে।

জয় হোক… জয় হোক… আবাহনীর জয় হোক……

১,১৪৫ বার দেখা হয়েছে

১৫ টি মন্তব্য : “আবারো আবাহনীর কাছে ধরা মোহামেডান…”

  1. তৌফিক (৯৬-০২)

    দেশসেরা একজন পেসারকে ইনজুরি থাকার পরও খেলানোর জন্য আবাহনীর ব্যান চাই।

    সিরিয়াসলিঃ
    নিউজিল্যান্ড টুর‌্যে ইনজুরড মাশরাফিকে দিয়ে ছোট রান আপে বল করিয়ে এরপর দেড় বছরের জন্য ছেলেটা হারিয়ে গিয়েছিল। আশংকার কথা বললাম, ইনজুরি কতটা গুরুতর জানি না। হয়তো খেলানোতে কোন বিপদের আশংকা নাই, আশা করি।

    জবাব দিন
  2. রবিন (৯৪-০০/ককক)
    ৩ ম্যাচে জয়সুরিয়ার মোট রান ৫২। ( বেচারা মোহামেডানে খেইলা নিজের ইজ্জত, ফর্ম সবই খুয়াইবে মনে হয়

    :khekz: :khekz:

    চালায়া যাও আবাহনী

    ধুর সব খেলাতেই আবাহনী জিতলে অন্য টীম কই? 😀

    জবাব দিন
  3. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    দূর এইগুলা এখন ডাল-ভাত হই গেছে। মোহামেডান পারতেছেনা, এখন আবাহনীর এইটা বি-টিম মাঠে নামানো দরকার, এর পর এ আর বি ফাইট করবে, তাও যদি একটু জমে টুর্নামেন্টগুলা


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  4. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    মোহামেডান আবারো ধরা খাইছে... এবার সূর্যতরুনের কাছে :clap: :clap: :clap:

    আর আবাহনীর তেমন কোন বিশেষ খবর নাই, আশরাফুলের গাজী ট্যাঙ্কের সাথে জিতছে... ১১৪ রানে


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : আদনান (১৯৯৪-২০০০)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।